ঢাকা ০৫:৩৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

৮৩ বছর বয়সে থেমে গেল পপ গায়িকা টিনার কণ্ঠ

  • আপডেট সময় : ১০:০৭:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩
  • ৫১ বার পড়া হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক: চলে গেলেন ‘কুইন অফ রক এন রোল’খ্যাত কিংবদন্তি পপ গায়িকা টিনা টার্নার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’-এর সংবাদে এমনটাই জানা গেছে। গত বুধবার (২৪ মে) সুইজারল্যান্ডের জুরিখে নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন টিনা। দীর্ঘদিন ধরে অন্ত্রের ক্যানসারে ভুগছিলেন তিনি। ২০১৬ সালে তার অন্ত্রে ক্যানসার ধরা পড়ে। ২০১৭ সালে তার কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়। ১৯৩৯ সালের ২৬ নভেম্বর টেনেসির নাটবুশে জন্ম টিনার। মা-বাবা তার নাম রেখেছিলেন আনা মাই বুলক। ষাটের দশক থেকে পপ শিল্পী হিসেবে আনা ওরফে টিনার জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তাকে বিভিন্ন প্রতিকূলতার মুখোমুখি হতে হয়। ক্যারিয়ারের এক পর্যায়ে তিনি গান থেকে কিছুটা দূরে সরে যান। এরপর ১৯৮০ সালে প্রত্যাবর্তন করেন। একের পর এক সুপারহিট গান শ্রোতাদের উপহার দেন। তার সংগীতের ঝুলিতে রয়েছে ‘হোয়াট’স লভ গট টু ডু উইদ ইট’’, ‘প্রাইভেট ডান্সার’, ‘সিম্পলি দ্য বেস্ট’-এর মতো সুপারহিট গান। তার গানের ১৮০ লাখেরও বেশি অ্যালবাম বিক্রি হয়েছে। জীবদ্দশায় তিনি ১২টি গ্র্যামি পুরস্কার পেয়েছেন। তার জীবনী নিয়ে সিনেমাও তৈরি হয়েছিল— ‘হোয়াট’স লভ গট টু উইদ ইট’। ‘টিনা— দ্য টিনা টার্নার মিউজিক্যাল’ নামে একটি ব্রডওয়ে মিউজিক্যালও তৈরি হয়েছিল তার জীবনী অবলম্বনে।

 

 

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

৮৩ বছর বয়সে থেমে গেল পপ গায়িকা টিনার কণ্ঠ

আপডেট সময় : ১০:০৭:০৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

বিনোদন ডেস্ক: চলে গেলেন ‘কুইন অফ রক এন রোল’খ্যাত কিংবদন্তি পপ গায়িকা টিনা টার্নার। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর। ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’-এর সংবাদে এমনটাই জানা গেছে। গত বুধবার (২৪ মে) সুইজারল্যান্ডের জুরিখে নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন টিনা। দীর্ঘদিন ধরে অন্ত্রের ক্যানসারে ভুগছিলেন তিনি। ২০১৬ সালে তার অন্ত্রে ক্যানসার ধরা পড়ে। ২০১৭ সালে তার কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়। ১৯৩৯ সালের ২৬ নভেম্বর টেনেসির নাটবুশে জন্ম টিনার। মা-বাবা তার নাম রেখেছিলেন আনা মাই বুলক। ষাটের দশক থেকে পপ শিল্পী হিসেবে আনা ওরফে টিনার জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে। স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর তাকে বিভিন্ন প্রতিকূলতার মুখোমুখি হতে হয়। ক্যারিয়ারের এক পর্যায়ে তিনি গান থেকে কিছুটা দূরে সরে যান। এরপর ১৯৮০ সালে প্রত্যাবর্তন করেন। একের পর এক সুপারহিট গান শ্রোতাদের উপহার দেন। তার সংগীতের ঝুলিতে রয়েছে ‘হোয়াট’স লভ গট টু ডু উইদ ইট’’, ‘প্রাইভেট ডান্সার’, ‘সিম্পলি দ্য বেস্ট’-এর মতো সুপারহিট গান। তার গানের ১৮০ লাখেরও বেশি অ্যালবাম বিক্রি হয়েছে। জীবদ্দশায় তিনি ১২টি গ্র্যামি পুরস্কার পেয়েছেন। তার জীবনী নিয়ে সিনেমাও তৈরি হয়েছিল— ‘হোয়াট’স লভ গট টু উইদ ইট’। ‘টিনা— দ্য টিনা টার্নার মিউজিক্যাল’ নামে একটি ব্রডওয়ে মিউজিক্যালও তৈরি হয়েছিল তার জীবনী অবলম্বনে।