ঢাকা ১০:৪৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

সামার সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানালো সাউথইস্ট ইউনিভার্সি

  • আপডেট সময় : ১১:১৬:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে

ক্যাম্পাস ও ক্যারিয়ার ডেস্ক : সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি সামার ২০২৪ সেমিস্টারে নবাগত শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানাতে গত ৩, ৪ ও ৫ জুলাই পাঁচটি আলাদা সেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাল্টিপারপাস হলে নবীনবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। প্রথম সেশনটি ৩ জুলাই সকাল ১০টায় সিএসই বিভাগের নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য অনুষ্ঠিত হয়। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসএসএল ওয়্যারলেসের চিফ অপারেটিং অফিসার ইফতেখার আলম ইশক। একইদিন দুপুর ২টায় দ্বিতীয় সেশনে ইইই, আর্কিটেকচার এবং টেক্সটাইল বিভাগের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। এ সেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন মাইক্রোফাইবার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এম শামসুজ্জামান। ৪ জুলাই সকালে তৃতীয় সেশন শুরু হয়। যেখানে বাংলা, ইংরেজি ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। বাংলা একাডেমির সভাপতি সেলিনা হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে এ সেশনে উপস্থিত ছিলেন। এদিন বিকেল ৩টায় চতুর্থ সেশনে সাউথইস্ট বিজনেস স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ফজলুল কাদের প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সমাপনী সেশনে ইইই, সিএসই ও টেক্সটাইল বিভাগের উইকেন্ড প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। এ পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফাইবার@হোম লিমিটেডের চিফ টেকনোলজি অফিসার এবং এশিয়া প্যাসিফিক নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টার (এপনিক) এর নির্বাহী পরিষদ সদস্য সুমন আহমেদ সাবির। সব সেশনে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির উপচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম সভাপতিত্ব করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. মোফাজ্জল হোসেন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এয়ার ভাইস মার্শাল এম আবুল বাসার (অব.), ডিন ও বিভাগীয় প্রধানরা নবাগত শিক্ষার্থীদের আন্তরিকভাবে স্বাগত জানান। অতিথিরা নতুন শিক্ষার্থীদের সময়ানুবর্তী হতে এবং জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণে উৎসাহ দেন। তারা শিক্ষার্থীদের আত্মবিকাশ এবং ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জ্ঞানগত ও দক্ষতা অর্জনে প্রস্তুতির ওপর জোর দেন।

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

আমানতের অর্থ লুটে খাচ্ছে ব্যাংক : পিআরআই

সামার সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানালো সাউথইস্ট ইউনিভার্সি

আপডেট সময় : ১১:১৬:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪

ক্যাম্পাস ও ক্যারিয়ার ডেস্ক : সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি সামার ২০২৪ সেমিস্টারে নবাগত শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানাতে গত ৩, ৪ ও ৫ জুলাই পাঁচটি আলাদা সেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাল্টিপারপাস হলে নবীনবরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। প্রথম সেশনটি ৩ জুলাই সকাল ১০টায় সিএসই বিভাগের নতুন শিক্ষার্থীদের জন্য অনুষ্ঠিত হয়। এতে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসএসএল ওয়্যারলেসের চিফ অপারেটিং অফিসার ইফতেখার আলম ইশক। একইদিন দুপুর ২টায় দ্বিতীয় সেশনে ইইই, আর্কিটেকচার এবং টেক্সটাইল বিভাগের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। এ সেশনে প্রধান অতিথি ছিলেন মাইক্রোফাইবার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এম শামসুজ্জামান। ৪ জুলাই সকালে তৃতীয় সেশন শুরু হয়। যেখানে বাংলা, ইংরেজি ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। বাংলা একাডেমির সভাপতি সেলিনা হোসেন প্রধান অতিথি হিসেবে এ সেশনে উপস্থিত ছিলেন। এদিন বিকেল ৩টায় চতুর্থ সেশনে সাউথইস্ট বিজনেস স্কুলের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ ফজলুল কাদের প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। সমাপনী সেশনে ইইই, সিএসই ও টেক্সটাইল বিভাগের উইকেন্ড প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীদের স্বাগত জানানো হয়। এ পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফাইবার@হোম লিমিটেডের চিফ টেকনোলজি অফিসার এবং এশিয়া প্যাসিফিক নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টার (এপনিক) এর নির্বাহী পরিষদ সদস্য সুমন আহমেদ সাবির। সব সেশনে সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটির উপচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম সভাপতিত্ব করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. মোফাজ্জল হোসেন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এয়ার ভাইস মার্শাল এম আবুল বাসার (অব.), ডিন ও বিভাগীয় প্রধানরা নবাগত শিক্ষার্থীদের আন্তরিকভাবে স্বাগত জানান। অতিথিরা নতুন শিক্ষার্থীদের সময়ানুবর্তী হতে এবং জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণে উৎসাহ দেন। তারা শিক্ষার্থীদের আত্মবিকাশ এবং ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় জ্ঞানগত ও দক্ষতা অর্জনে প্রস্তুতির ওপর জোর দেন।