ঢাকা ০৩:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবনও হতে পারে বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে ড. ইউনূসের বক্তব্য অসত্য, অপমানজনক: আইনমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত : প্রধানমন্ত্রী অপরাধীদের ছাড়িয়ে নিতে তদবির হচ্ছে, বড় বড় জায়গার ফোন আসছে : এমপি আজিমের মেয়ে ঈদযাত্রায় বাড়তি ভাড়া আদায়ে ব্যবস্থা বেনজীর পরিবারের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ বাংলাদেশ থেকে শিশু যৌন নিপীড়নের ২৫ লাখ রিপোর্ট গেছে যুক্তরাষ্ট্রে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য বরাদ্দ কমেছে সেন্ট্রাল এসিতে বাড়তি শুল্ক আরোপে খাত ক্ষতিগ্রস্ত হবে: ব্রামা বেশি মাংস বহনে সেরা সমাধান আরএফএল কার্গো বক্স

শান্ত-মারিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত

  • আপডেট সময় : ০১:০২:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩
  • ৩৮ বার পড়া হয়েছে

প্রত্যাশা ডেস্ক : ৬০০০ এরও বেশি স্নাতক, স্নাতকোত্তরদের সনদ বিতরণ, বিভিন্ন দেওয়াসহ নানা বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো দেশের প্রথম ডিজাইন ও সাংস্কৃতিক বিশেষায়িত সৃজনশীল বিশ্ববিদ্যালয় শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজির তৃতীয় সমাবর্তন।
গতকাল সোমবার সকালে ঢাকার পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিভিশন সেন্টারে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপতির পক্ষে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহ-ই-আলমের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠানের মূল পর্ব। পরে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান, বরেণ্য শিল্পী অধ্যাপক মোস্তাফিজুল হক। তিনি দেশ-বিদেশে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রহণযোগ্যতা ও বিশেষায়িত হয়ে ওঠার পেছনে এর প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইমামুল কবীর শান্ত ও নিজের যুগপৎ উদ্যোগের কথা স্মরণ করে এর ভবিষ্যৎ অগ্রযাত্রায় কর্মক্ষেত্রে ছড়িয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের ভূমিকা তথা এর পেছনের চালিকা শক্তি শিক্ষকদের অবদানের ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ ও বাংলাদেশ অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মেসবাহ উদ্দিন আহমদ। সমাবর্তন বক্তব্য রাখনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ উপচার্য প্রফেসর শীনা এম. ফ্যালকোনার। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে রেজিস্ট্রার ড. পাড় মশিয়ূর রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, সব ফ্যাকাল্টিবৃন্দ, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সনদ দেওয়ার পাশাপাশি পাঁচ ক্যাটাগরিতে স্বর্ণপদকসহ বিভিন্ন পদক দেওয়া হয়। শেষ পর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত ও নৃত্য বিভাগ এবং এফডিটি ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীরা মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ফ্যাশন শো পরিবেশন করে।

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবনও হতে পারে

শান্ত-মারিয়াম বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত

আপডেট সময় : ০১:০২:০৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

প্রত্যাশা ডেস্ক : ৬০০০ এরও বেশি স্নাতক, স্নাতকোত্তরদের সনদ বিতরণ, বিভিন্ন দেওয়াসহ নানা বর্ণাঢ্য আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো দেশের প্রথম ডিজাইন ও সাংস্কৃতিক বিশেষায়িত সৃজনশীল বিশ্ববিদ্যালয় শান্ত-মারিয়াম ইউনিভার্সিটি অব ক্রিয়েটিভ টেকনোলজির তৃতীয় সমাবর্তন।
গতকাল সোমবার সকালে ঢাকার পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিভিশন সেন্টারে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে চ্যান্সেলর রাষ্ট্রপতির পক্ষে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শাহ-ই-আলমের স্বাগত বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠানের মূল পর্ব। পরে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান, বরেণ্য শিল্পী অধ্যাপক মোস্তাফিজুল হক। তিনি দেশ-বিদেশে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রহণযোগ্যতা ও বিশেষায়িত হয়ে ওঠার পেছনে এর প্রয়াত প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইমামুল কবীর শান্ত ও নিজের যুগপৎ উদ্যোগের কথা স্মরণ করে এর ভবিষ্যৎ অগ্রযাত্রায় কর্মক্ষেত্রে ছড়িয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের ভূমিকা তথা এর পেছনের চালিকা শক্তি শিক্ষকদের অবদানের ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন-বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য প্রফেসর ড. বিশ্বজিৎ চন্দ ও বাংলাদেশ অ্যাক্রিডিটেশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মেসবাহ উদ্দিন আহমদ। সমাবর্তন বক্তব্য রাখনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ উপচার্য প্রফেসর শীনা এম. ফ্যালকোনার। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে রেজিস্ট্রার ড. পাড় মশিয়ূর রহমানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন, বিভাগীয় প্রধান, সব ফ্যাকাল্টিবৃন্দ, কর্মকর্তা, কর্মচারীসহ বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সনদ দেওয়ার পাশাপাশি পাঁচ ক্যাটাগরিতে স্বর্ণপদকসহ বিভিন্ন পদক দেওয়া হয়। শেষ পর্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত ও নৃত্য বিভাগ এবং এফডিটি ডিপার্টমেন্টের শিক্ষার্থীরা মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ফ্যাশন শো পরিবেশন করে।