ঢাকা ০৩:২৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবনও হতে পারে বিচার প্রক্রিয়া নিয়ে ড. ইউনূসের বক্তব্য অসত্য, অপমানজনক: আইনমন্ত্রী তারেকসহ পলাতক আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত : প্রধানমন্ত্রী অপরাধীদের ছাড়িয়ে নিতে তদবির হচ্ছে, বড় বড় জায়গার ফোন আসছে : এমপি আজিমের মেয়ে ঈদযাত্রায় বাড়তি ভাড়া আদায়ে ব্যবস্থা বেনজীর পরিবারের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ বাংলাদেশ থেকে শিশু যৌন নিপীড়নের ২৫ লাখ রিপোর্ট গেছে যুক্তরাষ্ট্রে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য বরাদ্দ কমেছে সেন্ট্রাল এসিতে বাড়তি শুল্ক আরোপে খাত ক্ষতিগ্রস্ত হবে: ব্রামা বেশি মাংস বহনে সেরা সমাধান আরএফএল কার্গো বক্স

ব্যাংক, ভিসা ও মাস্টারকার্ড থেকে টাকা আনুন বিকাশে

  • আপডেট সময় : ০২:০২:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১
  • ৪৬ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোভিড সংক্রমণ বাড়ার এই সময়ে ব্যাংক কাউন্টার বা এটিএম থেকে টাকা তোলার ঝুঁকি এড়িয়ে এখন ঘরে বসেই নিরাপদে ২৯টি ব্যাংক এবং ভিসা ও মাস্টারকার্ড থেকে বিকাশে টাকা আনা যাচ্ছে অনায়াসে। পাশাপাশি বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকেই যেকোনো সময় যেকোনো স্থান থেকে প্রয়োজনমত টাকা পাঠানো, কেনাকাটার পেমেন্ট, মোবাইল রিচার্জ, ইউটিলিটি বিল পেমেন্টসহ অসংখ্য সেবা সহজেই নেয়া যাচ্ছে ক্যাশ টাকা স্পর্শ না করেই। এমএফএস খাতের সবচেয়ে বিস্তৃত এই অ্যাড মানি নেটওয়ার্ক থেকে নিজের অথবা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে যেকোনো সময় টাকা আনার এই সেবা কোভিডকালে গ্রাহককে তার ডিজিটাল লেনদেনে আরও স্বাধীন ও সক্ষম করে তুলেছে। এসব সুবিধার কারণে এরই মধ্যে প্রতিমাসে গড়ে ১২ লাখ গ্রাহক বিকাশের অ্যাড মানি সেবাটি ব্যবহার করছেন। গ্রাহককে অ্যাড মানিতে আরও উৎসাহিত করতে আগামী ৯ জুলাইয়ের মধ্যে একবার ন্যূনতম ৫০০০ টাকা অ্যাড মানি করলে বিকাশের পক্ষ থেকে অনুদান হিসেবে ১০ টাকা পৌঁছে যাবে দেশের স্বাস্থ্যখাতে। শুধু বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনা নয়, বিকাশ থেকে ৪টি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে টাকা জমা দেওয়ার সুবিধা ‘ট্রান্সফার মানি’ও চালু হয়েছে যা ব্যাংকে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে টাকা জমা দেয়ার ভোগান্তি দূর করেছে। ৫ কোটি ৩০ লাখ বিকাশ গ্রাহকের জন্য ব্যাংকের সঙ্গে লেনদেনকে হাতের মুঠোয় এনে দেয়া এই সেবা আগামীতে আরও নতুন ও সৃজনশীল ব্যাংকিং সেবাকে গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার পথকে সুগম করছে। বর্তমানে ২৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের গ্রাহকরা ইন্টারনেট ব্যাংকিং ও অ্যাপ থেকে সহজেই নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনতে পারছেন। ব্যাংকগুলো হলো-সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, প্রাইম ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, কমিউনিটি ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক, মধুমতি ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, এনআরবি ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, পদ্মা ব্যাংক, এসবিএসি ব্যাংক, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, সীমান্ত ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক ও ইউনিয়ন ব্যাংক। অন্যদিকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক ও সিটি ব্যাংক-এর অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করার সেবা নিতে পারছেন গ্রাহকরা। একই সঙ্গে বাংলাদেশে ইস্যুকৃত সব ভিসা কার্ড ও মাস্টারকার্ড থেকে একইভাবে নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনার সেবাও ব্যবহার করছেন গ্রাহক। বিকাশে টাকা আনতে প্রথমে গ্রাহককে যে ব্যাংক থেকে অ্যাড মানি করতে চান সেই ব্যাংকের ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ে নিবন্ধন করে নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ নম্বর বেনিফিশিয়ারি হিসেবে যুক্ত করতে হবে। এরপর ইন্টারনেট ব্যাংকিং এ লগ ইন করে কয়েকটি সুনির্দিষ্ট ধাপে বিকাশ নম্বর, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, টাকার পরিমাণ, ওটিপি কোড, বিকাশ পিন ইত্যাদি টাইপ করলে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন সহজেই। লেনদেন সম্পন্ন হলে গ্রাহক এসএমএস নোটিফিকেশন পাবেন। বিকাশে অ্যাড মানি করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নির্ধারিত লিমিট প্রযোজ্য হবে। কার্ড থেকে অ্যাড মানি করতে বিকাশ অ্যাপের কার্ড টু বিকাশ অপশন থেকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করেই অ্যাডমানি করার সেবা নেয়া যাচ্ছে। একজন গ্রাহক একাধিক কার্ড থেকে এই সেবা নিতে পারেন। ঘরে বসেই ২৯টি ব্যাংক এবং বাংলাদেশে ইস্যুকৃত যেকোনো ভিসা/মাস্টারকার্ড থেকে অ্যাড মানি করে গ্রাহকরা সেন্ড মানি, মোবাইল রিচার্জ, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ, অফলাইন বা অনলাইন কেনাকাটার পেমেন্ট, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অনুদান, কর পরিশোধ, বিভিন্ন ধরনের সরকারি সেবার ফি পরিশোধ, স্কুল কলেজের বেতন পরিশোধ, বিভিন্ন অনলাইন নিবন্ধনের ফি পরিশোধ, বিমান-ট্রেন-বাস-লঞ্চ সহ সব ধরণের যানবহনের টিকিট কেনা, ইন্স্যুরেন্স প্রিমিয়াম দেওয়াসহ অসংখ্য সেবা খুব সহজেই নিতে পারছেন। এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে দেশজুড়ে বিকাশের ২ লাখ ৭০ হাজার এজেন্ট পয়েন্টে গিয়ে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাশ আউটও করতে পারছেন গ্রাহক।

ট্যাগস :

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিচার শুরু দোষী সাব্যস্ত হলে যাবজ্জীবনও হতে পারে

ব্যাংক, ভিসা ও মাস্টারকার্ড থেকে টাকা আনুন বিকাশে

আপডেট সময় : ০২:০২:২৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৬ জুন ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোভিড সংক্রমণ বাড়ার এই সময়ে ব্যাংক কাউন্টার বা এটিএম থেকে টাকা তোলার ঝুঁকি এড়িয়ে এখন ঘরে বসেই নিরাপদে ২৯টি ব্যাংক এবং ভিসা ও মাস্টারকার্ড থেকে বিকাশে টাকা আনা যাচ্ছে অনায়াসে। পাশাপাশি বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকেই যেকোনো সময় যেকোনো স্থান থেকে প্রয়োজনমত টাকা পাঠানো, কেনাকাটার পেমেন্ট, মোবাইল রিচার্জ, ইউটিলিটি বিল পেমেন্টসহ অসংখ্য সেবা সহজেই নেয়া যাচ্ছে ক্যাশ টাকা স্পর্শ না করেই। এমএফএস খাতের সবচেয়ে বিস্তৃত এই অ্যাড মানি নেটওয়ার্ক থেকে নিজের অথবা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে যেকোনো সময় টাকা আনার এই সেবা কোভিডকালে গ্রাহককে তার ডিজিটাল লেনদেনে আরও স্বাধীন ও সক্ষম করে তুলেছে। এসব সুবিধার কারণে এরই মধ্যে প্রতিমাসে গড়ে ১২ লাখ গ্রাহক বিকাশের অ্যাড মানি সেবাটি ব্যবহার করছেন। গ্রাহককে অ্যাড মানিতে আরও উৎসাহিত করতে আগামী ৯ জুলাইয়ের মধ্যে একবার ন্যূনতম ৫০০০ টাকা অ্যাড মানি করলে বিকাশের পক্ষ থেকে অনুদান হিসেবে ১০ টাকা পৌঁছে যাবে দেশের স্বাস্থ্যখাতে। শুধু বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনা নয়, বিকাশ থেকে ৪টি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে টাকা জমা দেওয়ার সুবিধা ‘ট্রান্সফার মানি’ও চালু হয়েছে যা ব্যাংকে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে টাকা জমা দেয়ার ভোগান্তি দূর করেছে। ৫ কোটি ৩০ লাখ বিকাশ গ্রাহকের জন্য ব্যাংকের সঙ্গে লেনদেনকে হাতের মুঠোয় এনে দেয়া এই সেবা আগামীতে আরও নতুন ও সৃজনশীল ব্যাংকিং সেবাকে গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়ার পথকে সুগম করছে। বর্তমানে ২৯টি বাণিজ্যিক ব্যাংকের গ্রাহকরা ইন্টারনেট ব্যাংকিং ও অ্যাপ থেকে সহজেই নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনতে পারছেন। ব্যাংকগুলো হলো-সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, প্রাইম ব্যাংক, এক্সিম ব্যাংক, যমুনা ব্যাংক, কমিউনিটি ব্যাংক, ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক, মিডল্যান্ড ব্যাংক, মধুমতি ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, এনআরবি ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, পদ্মা ব্যাংক, এসবিএসি ব্যাংক, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক, এনআরবিসি ব্যাংক, সীমান্ত ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, আইএফআইসি ব্যাংক ও ইউনিয়ন ব্যাংক। অন্যদিকে বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক ও সিটি ব্যাংক-এর অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করার সেবা নিতে পারছেন গ্রাহকরা। একই সঙ্গে বাংলাদেশে ইস্যুকৃত সব ভিসা কার্ড ও মাস্টারকার্ড থেকে একইভাবে নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা আনার সেবাও ব্যবহার করছেন গ্রাহক। বিকাশে টাকা আনতে প্রথমে গ্রাহককে যে ব্যাংক থেকে অ্যাড মানি করতে চান সেই ব্যাংকের ইন্টারনেট ব্যাংকিংয়ে নিবন্ধন করে নিজের বা প্রিয়জনের বিকাশ নম্বর বেনিফিশিয়ারি হিসেবে যুক্ত করতে হবে। এরপর ইন্টারনেট ব্যাংকিং এ লগ ইন করে কয়েকটি সুনির্দিষ্ট ধাপে বিকাশ নম্বর, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর, টাকার পরিমাণ, ওটিপি কোড, বিকাশ পিন ইত্যাদি টাইপ করলে বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারবেন সহজেই। লেনদেন সম্পন্ন হলে গ্রাহক এসএমএস নোটিফিকেশন পাবেন। বিকাশে অ্যাড মানি করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক নির্ধারিত লিমিট প্রযোজ্য হবে। কার্ড থেকে অ্যাড মানি করতে বিকাশ অ্যাপের কার্ড টু বিকাশ অপশন থেকে কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করেই অ্যাডমানি করার সেবা নেয়া যাচ্ছে। একজন গ্রাহক একাধিক কার্ড থেকে এই সেবা নিতে পারেন। ঘরে বসেই ২৯টি ব্যাংক এবং বাংলাদেশে ইস্যুকৃত যেকোনো ভিসা/মাস্টারকার্ড থেকে অ্যাড মানি করে গ্রাহকরা সেন্ড মানি, মোবাইল রিচার্জ, ইউটিলিটি বিল পরিশোধ, অফলাইন বা অনলাইন কেনাকাটার পেমেন্ট, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অনুদান, কর পরিশোধ, বিভিন্ন ধরনের সরকারি সেবার ফি পরিশোধ, স্কুল কলেজের বেতন পরিশোধ, বিভিন্ন অনলাইন নিবন্ধনের ফি পরিশোধ, বিমান-ট্রেন-বাস-লঞ্চ সহ সব ধরণের যানবহনের টিকিট কেনা, ইন্স্যুরেন্স প্রিমিয়াম দেওয়াসহ অসংখ্য সেবা খুব সহজেই নিতে পারছেন। এছাড়া জরুরি প্রয়োজনে দেশজুড়ে বিকাশের ২ লাখ ৭০ হাজার এজেন্ট পয়েন্টে গিয়ে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্যাশ আউটও করতে পারছেন গ্রাহক।