The Daily Ajker Prottasha

বিশ্বকাপ : পতাকা, জার্সি, স্লোগানে মুখর ঢাবি ক্যাম্পাস

0 0
Read Time:7 Minute, 6 Second

ক্যাম্পাস ও ক্যারিয়ার ডেস্ক : আরবের দেশ কাতারে হচ্ছে ফুটবল বিশ্বকাপ, সেই উন্মাদনা ছড়িয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতেও। প্রিয় দলের সমর্থকদের নিয়ে ‘ফ্যান ক্লাব’ গড়ে সবচেয়ে বড় পতাকা টানানোর প্রতিযোগিতা চলছে। জার্সি পরে রাত-বিরাতে মিছিল-স্লোগানে মেতেছেন শিক্ষার্থীরা। আবাসিক হলগুলো ছেয়ে গেছে আর্জেন্টিনার আকাশি-নীল আর ব্রাজিলের হলুদ-সবুজ পতাকায়। ফাঁকে ফাঁকে চোখে পড়ে জার্মানি, স্পেন, ফ্রান্স আর পর্তুগালের পতাকাও। বাংলাদেশ বিশ্বকাপে নেই, তবে প্রিয় দলের পতাকার পাশাপাশি নিজের দেশের লাল-সবুজও রেখেছেন ফুলবলভক্তরা। টিএসসি ও হলগুলোতে বড় পর্দায় খেলা দেখার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। হল পাড়া ও কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে প্রতিদিন বসছে জার্সির দোকান। কে কত ভালো মানের জার্সি কিনবেন– চলছে সেই প্রতিযোগিতা। দল বেঁধে নিজ নিজ দলের জার্সি পরে ফটোসেশনের সঙ্গে প্রচ- বাকযুদ্ধও চলছে। সেই তর্কযুদ্ধে কেউ কাউকে এতটুকু ছাড় দিতে রাজি নয়। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুই দলের সমর্থকরাই উচ্ছ্বসিত, উত্তেজিত। দুই পক্ষই আশাবাদী, বিশ্বকাপ এবার তাদের ঘরেই যাবে।
আর্জেন্টিনার সমর্থকরা চাইছেন, নিজের শেষ বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বিদায় নিক লিওনেল মেসি। আর ব্রাজিলের সমর্থকদের প্রত্যাশা হেক্সা, মানে ষষ্ঠ বিশ্বকাপ। সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের শিক্ষার্থী ইয়াসিন আল শাহীন বললেন, “আমরা আর্জেন্টিনার সমর্থক গোষ্ঠী এবার প্রত্যাশা করি, বিশ্বকাপটা আর্জেন্টিনার চাইতে মেসির হাতে শোভা পাবে। টিম হিসেবে আমরা আর্জেন্টিনার চাইতে মেসিকে বড় করে দেখছি। “যেহেতু এই বিশ্বকাপের পরে মেসির আর খেলার সম্ভবনা নেই, শেষবারের মতো তার হাতেই কাপটা উঠুক। আশা করি ফুটবল বিশ্বের সবাই এটা চায়।” খেলা উপভোগ করতে নানা প্রস্তুতি নেওয়ার কথা জানিয়ে ইয়াছিন বলেন, “আমরা ইতোমধ্যে একশ ফুটের একটা বড় পতাকা টানিয়েছে, পাশাপাশি ছোট পতাকার সঙ্গে বাংলাদেশের পতাকাও টানিয়েছি। খেলার দিন আমরা ব্যান্ড পার্টি নিয়ে আসতেছি। প্রজেক্টরেও খেলা দেখার প্রস্তুতি নিয়েছি।” ২০০২ সালের পর আর কোনো বিশ্বকাপ জেতেনি ব্রাজিল। এবার কাতারের হাওয়া ব্রাজিলের পক্ষেই যাবে বলে জগন্নাথ হল ছাত্র সংসদের সাবেক সাহিত্য সম্পাদক জয়দীপ দত্তের বিশ্বাস।
“এবার যেহেতু এশিয়াতে বিশ্বকাপ হচ্ছে, আবহাওয়া লাতিনের ফেভারে যাবে। সেই দিক থেকে আমরা হেক্সা মিশনের প্রত্যাশা রাখতেই পারি। বর্তমান র‌্যাংকিং ও ব্রাজিলের প্লেয়ারদের দুর্দান্ত ফর্মই বলে দিচ্ছে এবার তারা চ্যাম্পিয়ন হবে।” মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের পতাকায় ছেয়ে গেছে; সঙ্গে রয়েছে তারকা খেলোয়াড়দের ছবি ও ব্যানার-ফেস্টুন। জিয়াউর রহমান হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদ হাসিবুল হাসান শান্ত আর্জেন্টিনার সমর্থক। তিনি বলেন, “বিশ্বকাপে যেহেতু বাংলাদেশ প্রতিনিধিত্ব করছে না, তাই আমাদের শিক্ষার্থীদের পছন্দের দুটি দল হল আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল। সেক্ষেত্রে আমরা হলের শিক্ষার্থীদের পাশে নিয়ে আমাদের হলটাকে মনের মাধুরি মিশিয়ে সাজিয়েছি। “হলে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার দুটো ফ্যানক্লাব আছে। তবে পতাকা বা খেলোয়াড়দের ছবি টানানোর ক্ষেত্রে পাশাপাশি দুদলের জন্য ছাড় দেওয়া হয়েছে। প্রথমে আমরা আর্জেন্টিনা সমর্থকরা ব্যানারগুলো লাগিয়ে ছিলাম। পরে আমাদের কিছু ব্যানার খুলে ব্রাজিল সমর্থকদের সুযোগ করে দিয়েছি। আমরা এভাবে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের মধ্য দিয়ে হলটাকে সাজিয়েছি।” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের হলগুলোও সেজেছে প্রিয় দলের পতাকায়; বড় পর্দায় খেলা দেখতে চলছে প্রস্তুতি। রোকেয়া হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকা বিনতে হোসেন বলেন, “আমাদের হলে দুটি টিভিরুম রয়েছে, সেখানেও খেলা দেখার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া আমরা প্রজেক্টরে খেলা দেখার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছি।” ব্রাজিল সমর্থক এ শিক্ষার্থী বলেন, “এবার আমরা হেক্সা মিশন সফল করতে পারব। সবাই যার যার দলের সাপোর্ট করলেও হলে এটা নিয়ে যেন কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা না ঘটে, আমরা সেটাও খেয়াল রাখব। সবাই একসঙ্গে বসে বিশ্বকাপ উদযাপন করব, এই আশা রাখছি।” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে পর্তুগালের পতাকাও টানানো দেখা গেল। পর্তুগাল সমর্থক মাস্টার দা সূর্যসেন হলের শিক্ষার্থী আল সাদী ভূঁইয়া বলেন, “এবার বিশ্বকাপে পর্তুগাল টিম খুব দুর্দান্ত খেলবে। ফুটবলের মহাতারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর হাত ধরে এবার প্রথমবারের মতো ফুটবল বিশ্বকাপ নেবে পর্তুগাল।”

Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %

Average Rating

5 Star
0%
4 Star
0%
3 Star
0%
2 Star
0%
1 Star
0%

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *