ঢাকা ১১:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

প্রাণ গেল স্কুল শিক্ষকের, স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

  • আপডেট সময় : ১২:৫৪:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে

রাজশাহী সংবাদদাতা : রাজশাহীর চারঘাটে ধানবোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় হাবিবুর রহমান নামের এক স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তার স্ত্রী শিরিন সুলতানা। গতকাল সোমবার দিনগত রাত ১টার দিকে চারঘাট-বানেশ্বর সড়কের মোক্তারপুর ট্রাফিক মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত শিরিন সুলতানাকে রাতেই ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে বর্তমানে তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। এদিকে ঘটনাস্থলেই মারা যাওয়া শিক্ষক হাবিবুর রহমান চারঘাট উপজেলার নিমপাড়া ইউনিয়নের কামীনিগঙ্গারামপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং কাসেম প্রামাণিকের ছেলে। এ ঘটনায় ওই ট্রাকসহ চালককেও আটক করা হয়েছে। থানায় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুপুরে তার নামে নিয়মিত মামলাও দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, স্কুল শিক্ষক হাবিবুর রহমান পাশের বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ও তার স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। সোমবার বিকেলে তারা স্বামী-স্ত্রী রাজশাহী শহরে চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন। তবে তাদের ফিরতে গভীর রাত হয়ে যায়। চিকিৎসা শেষে তারা অটোরিকশায় করে রাজশাহী শহর থেকে চারঘাট-বানেশ্বর সড়ক হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। তবে তারা মোক্তারপুর ট্রাফিক মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ধানবোঝায় ট্রাক (কুষ্টিয়া-ট-১১-১২৮৮) তাদের অটোরিকশাকে সজোড়ে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান স্কুল শিক্ষক হাবিবুর রহমান। গুরুতর আহত হন তার স্ত্রী শিরিন সুলতানা। পরে উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তবে নিহতের স্ত্রী শিরিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে সেখান থেকে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে আহত শিরিন সুলতানার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। রাজশাহীর চারঘাট মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) আফজাল হোসেন জানান, এ ঘটনায় নিহত হাবিবুর রহমানের ছেলে কাইনাথ হাবিব লামিম বাদী হয়ে মঙ্গলবার নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন। এতে আটক ট্রাকচালক শাজাহান আলীকে এক মাত্র আসামি করা হয়েছে। দুপুরের মধ্যেই তাকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

আমানতের অর্থ লুটে খাচ্ছে ব্যাংক : পিআরআই

প্রাণ গেল স্কুল শিক্ষকের, স্ত্রীর অবস্থা আশঙ্কাজনক

আপডেট সময় : ১২:৫৪:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

রাজশাহী সংবাদদাতা : রাজশাহীর চারঘাটে ধানবোঝাই ট্রাকের ধাক্কায় হাবিবুর রহমান নামের এক স্কুল শিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। এ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তার স্ত্রী শিরিন সুলতানা। গতকাল সোমবার দিনগত রাত ১টার দিকে চারঘাট-বানেশ্বর সড়কের মোক্তারপুর ট্রাফিক মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত শিরিন সুলতানাকে রাতেই ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে বর্তমানে তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। এদিকে ঘটনাস্থলেই মারা যাওয়া শিক্ষক হাবিবুর রহমান চারঘাট উপজেলার নিমপাড়া ইউনিয়নের কামীনিগঙ্গারামপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং কাসেম প্রামাণিকের ছেলে। এ ঘটনায় ওই ট্রাকসহ চালককেও আটক করা হয়েছে। থানায় জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মঙ্গলবার (২ জুলাই) দুপুরে তার নামে নিয়মিত মামলাও দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, স্কুল শিক্ষক হাবিবুর রহমান পাশের বাঘা উপজেলার মীরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। তিনি ও তার স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। সোমবার বিকেলে তারা স্বামী-স্ত্রী রাজশাহী শহরে চিকিৎসা করাতে গিয়েছিলেন। তবে তাদের ফিরতে গভীর রাত হয়ে যায়। চিকিৎসা শেষে তারা অটোরিকশায় করে রাজশাহী শহর থেকে চারঘাট-বানেশ্বর সড়ক হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। তবে তারা মোক্তারপুর ট্রাফিক মোড়ে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ধানবোঝায় ট্রাক (কুষ্টিয়া-ট-১১-১২৮৮) তাদের অটোরিকশাকে সজোড়ে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান স্কুল শিক্ষক হাবিবুর রহমান। গুরুতর আহত হন তার স্ত্রী শিরিন সুলতানা। পরে উপজেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা তার স্ত্রীকে উদ্ধার করে প্রথমে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে যান। তবে নিহতের স্ত্রী শিরিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে সেখান থেকে পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে আহত শিরিন সুলতানার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। রাজশাহীর চারঘাট মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি, তদন্ত) আফজাল হোসেন জানান, এ ঘটনায় নিহত হাবিবুর রহমানের ছেলে কাইনাথ হাবিব লামিম বাদী হয়ে মঙ্গলবার নিয়মিত মামলা দায়ের করেছেন। এতে আটক ট্রাকচালক শাজাহান আলীকে এক মাত্র আসামি করা হয়েছে। দুপুরের মধ্যেই তাকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।