এবারের বর্ষসেরা শব্দ ‘লকডাউন’

এবারের বর্ষসেরা শব্দ ‘লকডাউন’

প্রত্যাশা ডেস্ক : কলিনস ডিকশনারি চলতি বছরের সবচেয়ে আলোচিত শব্দ হিসেবে বেছে নিয়েছে করোনা মহামারিতে বহুল ব্যবহৃত ‘লকডাউন’ শব্দটি। করোনাভাইরাসের বিস্তারের সময় নাটকীয়ভাবে শব্দটির ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় ইংরেজি ভাষার অভিধান কলিনসের ‘ওয়ার্ড অব দ্য ইয়ার’ নির্বাচিত হয়েছে ‘লকডাউন’।
ইংরেজি ভাষার এই অভিধান কর্তৃপক্ষ বলছে, করোনাভাইরাস মহামারির লাগাম টানতে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের সরকারের নেয়া পদক্ষেপের মুখোমুখি হওয়া কোটি কোটি মানুষের অভিজ্ঞতার সমার্থক শব্দ হয়ে উঠেছে ‘লকডাউন’।
কলিনস ডিকশনারির প্রকাশক হার্পার কলিনস বলেছেন, বিশ্বজুড়ে করোনার বিস্তার মোকাবিলায় সম্মিলিতভাবে ভূমিকা রাখা কোটি কোটি মানুষের সামগ্রিক অভিজ্ঞতার প্রতিনিধিত্ব করেছে এই শব্দটি।
চলতি বছরে বিশ্বজুড়ে আড়াই লাখের বেশিবার ‘লকডাউন’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু আগের বছর এই শব্দটি ব্যবহার হয়েছিল মাত্র ৪ হাজার বার।
করোনাভাইরাস মহামারি মানুষের দৈনন্দিনের ভাষার ব্যবহারকে প্রভাবিত করেছে। এ কারণে ২০২০ সালে কলিনসের বেছে নেয়া আলোচিত দশটি শব্দে ঠাঁই হয়েছে বৈশ্বিক স্বাস্থ্য সঙ্কট সম্পর্কিত ছয়টি শব্দের।
এই ছয়টি শব্দের মধ্যে রয়েছে ‘করোনাভাইরাস’, ‘সোস্যাল ডিসটেনসিং’, ‘সেলফ-আইসোলেট’, ‘ফারলো’, ‘লকডাউন’ এবং ‘কো-ওয়ার্কার’। তবে এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত লকডাউন শব্দটি।
কলিনসের ভাষা পরামর্শক হেলেন নিউজস্টিড বলেছেন, ২০২০ সালজুড়ে বৈশ্বিক করোনাভাইরাস মহামারির আধিপত্য ছিল। লকডাউন আমাদের কাজ, অধ্যয়ন, কেনাকাটা এবং সামাজিকীকরণের ওপর প্রভাব ফেলেছে। তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ দ্বিতীয় লকডাউনে প্রবেশ করেছে; এই শব্দটি উদযাপনের মতো কিছুই নয়। কলিনস লকডাউন শব্দটিকে ভ্রমণ, সামাজিক মিথস্ক্রিয়া এবং উন্মুক্ত স্থানে জনসাধারণের অবাধ যাতায়াতের ওপর কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করেছেন।

Please follow and like us: