ঢাকা ০৯:১১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

অবৈধ সম্পদ অর্জনে রাজউক কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুই মামলা

  • আপডেট সময় : ০১:২৩:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪
  • ৩৪ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) পরিচালক (উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণ-২) মোবারক হোসেন ও তার স্ত্রী সাহানা পারভীনের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল বুধবার (৩ জুলাই) দুদকের সহকারী পরিচালক আসিফ আল মাহমুদ বাদী হয়ে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ এ মামলা দুটি দায়ের করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, রাজউক কর্মকর্তা সাবেক অথরাইজড অফিসার ও বর্তমানে উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ-২ এর পরিচালক মো. মোবারক হোসেনের দাখিল করা সম্পদ বিবরণী অনুযায়ী ৪১ লাখ ৪৬ হাজার ৮৪৫ টাকা জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ অর্জন করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। অপর এজাহারে বলা হয়, মোবারক হোসেনের সঙ্গে যোগসাজশ করে পরস্পরের সহযোগিতার মাধ্যমে ১ কোটি ৫৮ লাখ ৭৩ হাজার ১৫২ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে সাহানা পারভীন শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। মামলার তদন্তকালে অন্য কারও সংশ্লিষ্টতা পেলে তাদেরও আইনামলে আনা হবে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

 

যোগাযোগ

সম্পাদক : ডা. মোঃ আহসানুল কবির, প্রকাশক : শেখ তানভীর আহমেদ কর্তৃক ন্যাশনাল প্রিন্টিং প্রেস, ১৬৭ ইনার সার্কুলার লার রোড, মতিঝিল থেকে মুদ্রিত ও ৫৬ এ এইচ টাওয়ার (৯ম তলা), রোড নং-২, সেক্টর নং-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০ থেকে প্রকাশিত। ফোন-৪৮৯৫৬৯৩০, ৪৮৯৫৬৯৩১, ফ্যাক্স : ৮৮-০২-৭৯১৪৩০৮, ই-মেইল : [email protected]
আপলোডকারীর তথ্য

আমানতের অর্থ লুটে খাচ্ছে ব্যাংক : পিআরআই

অবৈধ সম্পদ অর্জনে রাজউক কর্মকর্তা ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুই মামলা

আপডেট সময় : ০১:২৩:২০ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ জুলাই ২০২৪

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) পরিচালক (উন্নয়ন নিয়ন্ত্রণ-২) মোবারক হোসেন ও তার স্ত্রী সাহানা পারভীনের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল বুধবার (৩ জুলাই) দুদকের সহকারী পরিচালক আসিফ আল মাহমুদ বাদী হয়ে সমন্বিত জেলা কার্যালয়, ঢাকা-১ এ মামলা দুটি দায়ের করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, রাজউক কর্মকর্তা সাবেক অথরাইজড অফিসার ও বর্তমানে উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ-২ এর পরিচালক মো. মোবারক হোসেনের দাখিল করা সম্পদ বিবরণী অনুযায়ী ৪১ লাখ ৪৬ হাজার ৮৪৫ টাকা জ্ঞাত আয়ের উৎসের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ অর্জন করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। অপর এজাহারে বলা হয়, মোবারক হোসেনের সঙ্গে যোগসাজশ করে পরস্পরের সহযোগিতার মাধ্যমে ১ কোটি ৫৮ লাখ ৭৩ হাজার ১৫২ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করে সাহানা পারভীন শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। মামলার তদন্তকালে অন্য কারও সংশ্লিষ্টতা পেলে তাদেরও আইনামলে আনা হবে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়।