পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র ধ্বংস করল উ. কোরিয়া

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : উত্তর কোরিয়া আঞ্চলিক উত্তেজনা প্রশমনের জন্য পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা কেন্দ্রের সুড়ঙ্গ ধ্বংস করে তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেছে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম। গতকাল বৃহস্পতিবার উত্তর কোরিয়া তাদের পুংগিয়ে-রি পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষাকেন্দ্রে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে সুড়ঙ্গ ধ্বংস করেছে। কেন্দ্রটি পরিদর্শনে যাওয়া বিদেশি সাংবাদিকরাও বড় ধরনের বিস্ফোরণ দেখতে পাওয়ার কথা জানিয়েছেন। উত্তর কোরিয়া তাদের এ পরীক্ষাকেন্দ্রেই সব মিলে ছয়টি পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছিল। দেশের উত্তরপূর্বাঞ্চলের মাউন্ট মানটাপ পর্বতের নিচে খোঁড়া কয়েকটি সুড়ঙ্গ নিয়েই এ কেন্দ্রটি গড়ে তোলা হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের যুগপৎ কূটনৈতিক তৎপরতার অংশ হিসাবে উত্তর কোরিয়া এবছর শুরুর দিকে পরীক্ষাকেন্দ্রটি ভেঙে ফেলার প্রস্তাব দেয়। তবে বিজ্ঞানীদের ধারণা, ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে পরীক্ষাকেন্দ্রটিতে সর্বশেষ পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষার সময় এটি আংশিক ধসে পড়ে ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। কেন্দ্রটি ধ্বংস করে ফেলা দেখতে বাছাই করা ২০ জন মত বিদেশি সাংবাদিক ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তাদের সামনেই পরপর কয়েকটি বিস্ফোরণে প্রকম্পিত হয়ে সুড়ঙ্গগুলো ধসে পড়ে। সকালের দিকে দুটো বিস্ফোরণ এবং বিকালে ৪ টি বিস্ফোরণ ঘটেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। সুড়ঙ্গ ধ্বংসের কাজ শুরু হয় সকাল ১১ টার দিকে। বিস্ফোরণ ঘটিয়ে উড়িয়ে দেওয়া হয় একটি সুড়ঙ্গ এবং একটি পর্যবেক্ষণ স্থাপনা। এর কিছুক্ষণ পর আরেকটি সুড়ঙ্গ এবং আরো একটি স্থাপনা ধ্বংসের পর তৃতীয় আরেকটি সুড়ঙ্গ এবং পর্যবেক্ষণ স্থপনা ধ্বংস করা হয়। ধ্বংসযজ্ঞ শুরুর প্রায় ৫ ঘন্টা পর আরো দুটি সামরিক ব্যারাক ধ্বংস করা হয় বলে জানিয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার গণমাধ্যম। পরীক্ষাকেন্দ্রে উপস্থিত থাকা স্কাই নিউজের এক সাংবাদিক ঘটনার বর্ণনায় বলেছেন, ‘আমরা পর্বতের উপরে উঠে প্রায় ৫শ’ মাইল দূর থেকে বিস্ফোরণ ঘটানোর বিষয়টি দেখেছি।’ ‘তারা সময় গণনা করছিল- তিন, দুই, এক। আর তারপরই বিকট বিস্ফোরণ ঘটেছে। সে বিস্ফোরণের উত্তাপ অনুভব করতে পারার মত। বিস্ফোরণের তোড়ে উড়ে আসা ধুলো এবং আঁচও পাওয়া গেছে। প্রচ- জোরে আওয়াজ হয়েছে।’

Please follow and like us:
0