বুধ. ডিসে ১১, ২০১৯

৬ লাখ ৭২ হাজার নতুন করদাতার লক্ষ্যে এনবিআর

৬ লাখ ৭২ হাজার নতুন করদাতার লক্ষ্যে এনবিআর

Last Updated on

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : দেশব্যাপী ৬ লাখ ৭২ হাজার নতুন করদাতাকে করনেটের আওতায় আনতে জরিপ শুরু করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ইতোমধ্যে মাঠ পর্যায়ের কর অঞ্চলগুলো হতে জরিপ কার্যক্রম বাস্তবায়নে অঞ্চল ভিত্তিক ২১৩টি জরিপ টিম গঠন করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৭৬ হাজার ৪৬৫টি জরিপ শেষ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বুধবার এনবিআরের সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত প্রেস ব্রিফিংয়ে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এসব কথা বলেন।
এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘অর্থমন্ত্রী ১ কোটি করদাতা তৈরীর নির্দেশনা দিয়েছেন। এ লক্ষ্যে আয়কর বিভাগ চলতি অর্থবছরে পাঁচ সদস্যের টিম গঠন করেছে। যেখানে দুই কর্মকর্তা ও তিনজন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রয়েছে। প্রাপ্ত জরিপের তথ্যের ভিত্তিতে ৩ লাখ ৩১ হাজার ২৭২ টিআইএন বরাদ্দ করে আয়কর নির্ধারণ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’
তিনি বলেন, ‘ইতোমধ্যে জরিপ কার্যক্রমের মাধ্যমে কর মামলা নিষ্পত্তি করে প্রায় ২৮ কোটি ৩৩ লাখ ৭ হাজার ১০৪ কর আহরণ করা হয়েছে। চলতি অর্থ বছরে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক নতুন করদাতা সৃষ্টির এ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন সম্ভব হবে।’ রাজস্ব আদায়ের বিষয়ে মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে প্রায় ২ লাখ ২৩ হাজার ৮ শত ৯২ দশমিক ৪২ কোটি টাকা কর সংগ্রহ করেছে এনবিআর। যেখানে লক্ষ্যমাত্রা ছিলো ২ লাখ ৮০ হাজার ৬৩ কোটি টাকা। লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের গড় হার ৭৯.৯৪ শতাংশ। অর্থ্যাৎ প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১০.৭ শতাংশ।’
বর্তমান সরকারের ১০ বছর সময়কালে রাজস্ব আহরণ ৪ গুনেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে আদায়কৃত রাজস্বের মধ্যে আয়করে ৭২ হাজার ৮৯৯.৯০ কোটি, ভ্যাটে ৮৭ হাজার ৬১০.৩৬ কোটি এবং কাস্টমসে ৬৩ হাজার ৩৮২.১৬ কোটি টাকা, যা অতীতের সকল রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে।
বন্ড সুবিধা অপব্যবহার রোধে তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়েছে এমন তথ্য উপস্থাপন করে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘ফাঁকিবাজ বন্ড প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন, আমদানী পর্যায়ে অধিকতর নজরদারি এবং বিক্রি পর্যায়ে বিভিন্ন অভিযান জোরদার করা হয়েছে। শুল্ক বিষয়ে যথাযথভাবে শুল্কায়ন সম্পন্ন করার জন্য বিশেষভাবে আধুনিকায়ন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ভ্যাট ও শুল্ক ফাঁকি রোধে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘২০১৯-২০ অর্থবছরে বৃহৎ লক্ষ্যমাত্রা অর্জন একটি সর্বজন স্বীকৃত চ্যালেঞ্জিং কাজ। একটি করদাতা-বান্ধব এনবিআর তৈরির লক্ষ্যে সকল অংশীজনদের সমন্বিত ও পারস্পরিক অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে কাজ করে যাচ্ছি।’

Please follow and like us:
0