১০ বছরেই ‘ওয়াইল্ড লাইফ’ ফটোগ্রাফিতে বিশ্বসেরা

১০ বছরেই ‘ওয়াইল্ড লাইফ

প্রত্যাশা ডেস্ক : নাম আর্শদীপ সিং। বয়স ১০ বছর। আর এই অল্প বয়সেই ফটোগ্রাফির নেশা চেপেছে তার। তাও আবার ফটোগ্রাফির সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং পাঠ, ‘ওয়াইল্ড লাইফ’ ফটোগ্রাফিতে। ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের এই কিশোর ব্রিটেনের ন্যাচরাল হিস্টোরি মিউজিয়ামের ‘ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার অব দ্য ইয়ার’ প্রতিযোগিতায় জিতেছেন সেরার পুরস্কার।
‘ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার অব দ্য ইয়ার’ নামে এ পুরস্কারটির আয়োজন করে ব্রিটেনের ন্যাচরাল হিস্টোরি মিউজিয়াম। এবারে ৫৩তম অ্যাওয়ার্ডে ‘পাইপ ওলস’ নামের একটি ছবির কারণে তাকে সেরার পুরস্কার দেয়া হয়। ছবিটিতে দেখা যায় একটি পাইপের মধ্যে দুটি প্যাঁচা উঁকি মেরে জুবুথুবু হয়ে বসে আছে।

ওই পুরস্কারে মোট তিনটি ক্যাটাগরিতে ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফারদের পুরস্কৃত করা হয়। এবারের প্রতিযোগিতায় অনূর্ধ্ব-১০ বছর বয়সীদের ক্যাটাগরিতে সেরার পুরষ্কার পান আর্শদীপ সিং।
আর্শদীপ সিংয়ের ফটোগ্রাফির শুরু মাত্র ৬ বছর বয়সে। ছোটবেলা থেকেই বাবার সঙ্গে ছবি তুলতে যেত সে। তার বাবা রণদীপ সিং’ও একজন খ্যাতিমান ফটোগ্রাফার। বাবার সঙ্গে একদিন পাঞ্জাবের কুপারথালা নামক একটি এলাকা দিয়ে গাড়িতে করে যাওয়ার সময় এ দৃশ্য দেখতে পায় আর্শদীপ। দুটি প্যাঁচা একটি পাইপের ভেতর থেকে উঁকি মেরে বসে আছে দেখে তার বাবাকে গাড়ি থামাতে বলে সে। এরপর বাবার ক্যামেরা নিয়ে গাড়ির জানালার কাচ নামিয়ে দৃশ্যটিকে ফ্রেমবন্দি করে ফেলে সে। আর্শদীপ সম্প্রতি জুনিয়র এশিয়ান ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার অব দ্য ইয়ার পুরস্কার জিতেছেন। এছাড়াও লনলি প¬ানেট ইউকে, লনলি প¬ানেট জার্মানি, লনলি প¬ানেট ইন্ডিয়া এবং বিবিসি ওয়াইল্ড লাইফ ইউকেসহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রত্রিকায় তার তোলা ছবি প্রকাশিত হয়েছে।

Please follow and like us:
0