হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ৯৪ শতাংশ কমায় অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন

কমায় অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন

প্রত্যাশা ডেস্ক : হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ৯৪ শতাংশ কমায় অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনহাসপাতালে ভর্তির পরিমাণ ৯৪ শতাংশ কমায় অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিন
করোনা ভাইরাসের অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিন হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ৯৪ শতাংশ কমিয়ে আনতে সাহায্য করেছে। নতুন এক পরিসংখ্যানে এমন তথ্য উঠে এসেছে। যুক্তরাজ্যের একটি গবেষণার ফলাফল বলছে, দুই ডোজ বিশিষ্ট ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরুর পর থেকে শুধু এক ডোজ দেওয়ার পরই দেখা গেছে, হাসপাতালে ভর্তি হতে আসা রোগীর সংখ্যা ব্যাপক হারে কমেছে। এতে হাসপাতালগুলোর ওপর যে অস্বাভাবিক চাপ পড়েছিল, তা কমতে শুরু করেছে। গত ৮ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত স্কটল্যান্ডে ১১ লাখ ৪০ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। স্কটল্যান্ডের মোট জনসংখ্যার পাঁচ ভাগের একভাগ অন্তত প্রথম ডোজ পেয়েছেন। এ সময় এবং তারপরে তাদের হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি কমেছে। বিশেষজ্ঞরা দেখেন, ফাইজার-বায়োএনটেকের ভ্যাকসিন নেওয়ার পর হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ৮৫ শতাংশ এবং অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন দেওয়ার পর এ ঝুঁকি ৯৪ শতাংশ কমে। ইংল্যান্ডের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা অধ্যাপক ক্রিস হুইটি বলেন, ‘এ গবেষণায় আমরা দেখছি, ভ্যাকসিন দেওয়ার ফলে হাসপাতালে ভর্তি কমছে। ’ অন্যদিকে, স্কটল্যান্ডের ভ্যাকসিন গবেষণার প্রধান গবেষক এবং ইউনিভার্সিটি অব এডিনবার্গের আশার ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক আজিজ শেখ বলেন, ‘এ ফলাফল বেশ অনুপ্রেরণাদায়ক, যা ভবিষৎ নিয়ে আশাবাদী হওয়ার কারণ দেখিয়ে দিয়েছে। ’ তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে এখন প্রমাণ রয়েছে যে, ভ্যাকসিন দিলে কোভিড-১৯ এ ভুগে হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকি ও আশঙ্কা কমে। অর্থাৎ ভ্যাকসিন আমাদের এ ভয়াবহ রোগ থেকে সুরক্ষা দেয়। ’ সূত্র: মিরর (ইউকে)

Please follow and like us: