মঙ্গল. জুন ২৫, ২০১৯

সড়কে কাদেরের নজর ‘প্রথম রাতেই বিড়াল মারার’ মতো

সড়কে কাদেরের নজর ‘প্রথম রাতেই বিড়াল মারার’ মতো

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : সড়ক যোগাযোগ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তাঁর কাজের প্রধান অগ্রাধিকার হবে সড়ক ও পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। এ বিষয়ে তিনি ‘প্রথম রাতে বিড়াল মারার মতো’ নজর দিতে চান। দ্বিতীয় দফা দায়িত্ব নেওয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের কাছে নিজ মন্ত্রণালয়ের কর্মকাণ্ড ও দায়িত্ব তুলে ধরতে গিয়ে মন্ত্রী এ কথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়ক ও পরিবহনে বিশৃঙ্খলা জিইয়ে রেখে যতই প্রকল্প নেওয়া হোক না কেন, সড়ক-সেতু করা হোক না কেন, সেটার ফল বেশি ভালো হবে না। শৃঙ্খলা না থাকলে বড় বড় প্রকল্প করেও লাভ নেই। তাই শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতেই হবে। মন্ত্রী বলেন, সড়ক ও পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে মন্ত্রণালয়কে নিয়ে বসেছেন। সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশনা দিয়েছেন। এটা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ। আর এই শৃঙ্খলার বিষয়টি প্রথম দিকেই করতে হবে। পরে আবার রাজনৈতিক চাপ আসবে। কাজেই এ বিষয়ে ‘প্রথম রাতে বিড়াল মারার’ মতোই নজর দেওয়ার কথা জানান তিনি। এর আগেও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে অনেক উদ্যোগের কথা বলা হয়েছিল—সাংবাদিকেরা বিষয়টি জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, পারেননি বলেই নতুন করে উদ্যোগ নিচ্ছেন। তবে কিছুই হয়নি তা না। সড়কে বৈপ্লবিক উন্নয়ন হয়েছে। এ সময় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীনে বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন তিনি। ওবায়দুল কাদের আগামী জুনের আগে ঢাকা-সিলেট চার লেনের কাজ শুরু হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। এ সময় সাংবাদিকেরা জানতে চেয়েছিলেন, নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের পর এবার মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীদের না জানিয়েই তাঁদের একান্ত সচিব নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিষয়টি ভালোই হয়েছে।
৩২ নম্বরে যা বললেন : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যারা বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা করে না, নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। আগামী দিনে আন্দোলন করলেও তাদের প্রত্যাখ্যান করবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে তাঁর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় দলের জ্যেষ্ঠ নেতারাও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানান। শ্রদ্ধা জানান নবগঠিত মন্ত্রিসভার অনেক সদস্য উপস্থিত ছিলেন। শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকের কাছে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। ওবায়দুল কাদের বলেন, একজন রাজনীতিকের জীবনে মানুষের ভালোবাসার চেয়ে বড় সম্পদ আর কিছু নেই। শেখ হাসিনার কাছ থেকেও মানুষকে ভালোবাসার শিক্ষা পেয়েছেন তাঁরা। বঙ্গবন্ধুর সততা ও সাহসের আদর্শকে ধারণ করার শপথ নেবেন আজ থেকে। তিনি বলেন, আমাদের শপথ হবে, আমরা মাটির কাছে থাকব, মানুষের কাছে থাকব, মানুষের কাজে থাকব এবং জনস্বার্থে কাজ করে যাব।

Please follow and like us:
0