শনি. মার্চ ২৩, ২০১৯

স্বাস্থ্যকর ৭ ডিনার

স্বাস্থ্যকর ৭ ডিনার

Last Updated on

স্বাস্থ্য ডেস্ক : রাতে না খেয়ে ঘুমানো ঠিক না। ডিনারে হালকা খাবার খাওয়া উচিত। রাতের আহারে কার্বোহাইড্রেট যেন বেশি না থাকে- দিনের শেষ আহার সম্পর্কে এগুলো সাধারণ ধারণা। তবে যে যাই বলুক, রাতের আহারে স্বাস্থ্যকর ও পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার রাখা অত্যন্ত জরুরি। রইলো কিছু টিপসÑ
উচ্চ প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার : যারা সারাদিনে প্রচুর পরিশ্রম করেন ও মাংসল পেশি কমাতে চান তারা রাতের খাবারে লো কাবোহাইড্রেট ও উচ্চ প্রোটিনজাতীয় আইটেম রাখুন। এক বাটি মসুর ডাল, শিম ও অঙ্কুরিত মটশুটির সালাদ, খাসির মাংস ও দুটো রুটি খেতে পারেন। সঙ্গে রাখতে পারেন টকদইয়ের শরবত।
ওজন কমাতে : যারা ওজন কমাচ্ছেন তারা রাতে মাশরুম স্যুপ, ভেজিটেবল সালাদ, মটরশুটি ও শসার রাইতা খেতে পারেন।
হাই ফাইবার ডিনার : হাই ফাইবার ডিনারে রাখা যেতে পারেÑ পেঁয়াজ, শসা, টমেটো ও গাজরের সালাদ, বাদামি চালের ভাত ও ঢেঁড়শ।
স্বাস্থ্যকর ডিনার : লেটুস ও বিট দিয়ে তৈরি সালাদ সমেত গ্রিলড ভেজিটেবল, গ্রিলড চিকেন বা ফিশ ও দুটো রুটি রাখতে পারেন।
ঝটপট পুষ্টি : সারাদিনের ব্যস্ততার পর ঝটঝট ডিনারে বিভিন্ন রকম সবজি যেমন ব্রোকোলি, ফুলকপি, মরিচ, পালংশাক, টমেটো ইত্যাদি দিয়ে তৈরি পাস্তা তৈরি করুন।
দৈনন্দিন রাতের ভোজ : দৈনন্দিন খাদ্যতালিকার দিকেও চোখ রাখুন। প্রতিদিন রাতের খাবারে ভেজিটেবল স্যুপ বা সালাদ, রুটি, ডাল, মাছ ও দই রাখতে চেষ্টা করুন। খাবার ৩০ মিনিট পর মৌসুমী ফল খান।
রেডি-স্টেডি-গো : ভ্রমণের পথে যদি ডিনার করতে হয় তাহলে বাড়ি থেকেই খাবার তৈরি করে নিয়ে যান। মুরগির মাংস, গাজর, বরবটি, পেঁয়াজ, আলু আর ফুলকপি স্টিম করে হালকা মসলা দিয়ে রুটিতে রেখে রোল করুন। সঙ্গে রাখতে পারেন ডিমের সাদা অংশ ফ্রাই ও মাঠা তোলা দুধ।

Please follow and like us:
0