শনি. জানু ১৮, ২০২০

সৌদির রেস্টুরেন্টে একসঙ্গে নারী-পুরুষের প্রবেশ

সৌদির রেস্টুরেন্টে একসঙ্গে নারী-পুরুষের প্রবেশ

Last Updated on

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : একের পর এক নিষেধাজ্ঞা তুলে নিচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের কট্টরপন্থী দেশ সৌদি আরব। আগে দেশটির কোনো রেস্টুরেন্টে যেতে হলে নারী এবং পুরুষদের আলাদা দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে হতো। কিন্তু এখন সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হচ্ছে। এখন নারী এবং পুরুষের জন্য আলাদা দরজা থাকবে না। তারা একই দরজা দিয়ে রেস্টুরেন্টে প্রবেশ করতে পারবেন।
আগে সৌদির সব রেস্টুরেন্টেই নারী এবং পরিবারের জন্য একটি দরজা এবং পুরুষদের জন্য আলাদা দরজার ব্যবস্থা ছিল। কিন্তু সম্প্রতি পৌরসভা এবং গ্রামীণ সম্পর্কবিষয়ক মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় ঘোষণা করেছে যে, এখন থেকে এই নিয়ম আর বাধ্যতামূলক নয়। কোনো আত্মীয়তার সম্পর্ক নেই এমন নারী-পুরুষরা গত কয়েক দশক ধরেই জনসম্মুখে মেলামেশা করতে পারতেন না। দেশটিতে কঠোর সামাজিক অনুশাসনের কারণে দীর্ঘদিন ধরেই বেশ কিছু বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা জারি ছিল। কিন্তু সৌদির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান কট্টরপন্থি সৌদিতে সংস্কারের মাধ্যমে নানা ধরনের পরিবর্তন নিয়ে এসেছেন। এর আগে নারীদের ওপর থেকে গাড়ি চালানোর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়। এছাড়া দেশটিতে আগে বিনোদনের কোনো সুযোগ ছিল না। লোকজনকে বিনোদনের জন্য অন্যান্য দেশে ভ্রমণ করতে হতো। এখন সৌদিতেই বিভিন্ন ধরনের বিনোদনের সুযোগ তৈরি হচ্ছে। রেস্টুরেন্ট, ক্যাফে, কনফারেন্স এবং কনসার্টগুলোতে এখন আর নারী-পুরুষকে আলাদা দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে হবে না। তবে নারী-পুরুষ পাশাপাশি সিটে বসতে পারবেন কি-না সে বিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। এছাড়া নতুন এই নিয়ম বাধ্যতামূলকও নয়। যদি মালিকরা নতুন নিয়ম অনুসরণ করতে না চান তবে রেস্টুরেন্টগুলো চাইলে আগের মতোই আলাদা দরজার ব্যবস্থা রাখতে পারে। তবে স্কুল এবং হাসপাতাল ছাড়াও আরও বেশ কিছু ক্ষেত্রে এখনও আলাদাভাবে প্রবেশের নিয়ম চালু রয়েছে। সে ক্ষেত্রে নতুন কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

Please follow and like us:
3