শনি. এপ্রি ২০, ২০১৯

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

সুস্থ থাকার কিছু অন্যরকম উপায়

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : সুস্থ থাকা ও দীর্ঘ জীবনলাভের জন্য প্রয়োজন স্বাস্থ্যকর খাবার বা ব্যায়াম–এমনটাই সাধারণত শোনা যায়৷ তবে এর বাইরেও কিছু বিষয় রয়েছে, যেগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখলে সুস্থ ও সুখী থাকা সহজ মনে করেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ হান্স ভেরনার নেলেস৷
ভালো বন্ধু চাই : সুস্থ জীবনের জন্য সামাজিক বন্ধন, অর্থাৎ ভালো বন্ধু থাকা ঠিক স্বাস্থ্যকর খাবার আর হাঁটাচলার মতোই জরুরি৷ তথ্যটি প্রকাশ করেছে প্রসিডিং অফ দ্য ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ সায়েন্স৷ ১৫ হাজার মানুষ নিয়ে করা এক সমীক্ষা থেকে জানা যায়, ভালো বন্ধুর অভাবে বা মনের কথা আদান-প্রদান না করার কারণে তরুণদের মধ্য বিভিন্ন ধরনের ইনফেকশন দেখা দেয়৷ আর বয়স্কদের ক্ষেত্রে দেখা দেয় ব্লাডপ্রেশারের সমস্যা৷
দিবাস্বপ্ন জ্ঞান-বুদ্ধি বাড়ায় : অনেকেই সচেতনভাবে তাদের চিন্তাকে মুক্তভাবে প্রকাশ করে৷ বলা যায়, দিনে স্বপ্ন দেখা হচ্ছে চিন্তাভাবনাগুলোকে আগে থেকে গুছিয়ে রাখা বা সাম্প্রতিক কোনো সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা৷ আরও পরিস্কার করে বলা যায়, স্টেজ রিহার্সেল করা৷ ইংল্যান্ডের ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় এবং জার্মানির মাক্স প্লাঙ্ক ইন্সটিটিউটের করা সমীক্ষা থেকে তথ্যটি জানা যায়৷
ডাক্তারের মতামতকে গুরুত্ব দিন : যে মানুষ তার ডাক্তারকে বিশ্বাস করে এবং তার পরামর্শকে গুরুত্ব দেয়, সে দীর্ঘজীবন লাভ করে৷ বিভিন্ন দেশের মানুষকে নিয়ে করা একটি সমীক্ষা থেকে তথ্যটি বেরিয়েছে। এটি প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ মেডিকেল জার্নাল৷
কর্মস্থল থেকে বাসার দূরত্ব কমিয়ে আনুন : কর্মস্থল থেকে যার বাসা যত বেশি দূরত্বে তার মানসিকভাবে অসুস্থ হওয়ার আশঙ্কাও তত বেশি৷ আর সেকারণে কর্মস্থলেও তারা অনুপস্থিত থাকেন বেশি৷ এ তথ্য জানা যায় জার্মানির স্বাস্থ্যবীমা কোম্পানী এওকে-র বাৎরিক রিপোর্ট থেকে৷ তাদের শতকরা ৫০ ভাগ কর্মীই ৫০ কিলোমিটারের চেয়ে বেশি দূরে থাকেন৷
অন্যকে সুখী করার মধ্য দিয়ে নিজে সুখী : যেসব মানুষের মধ্যে অন্যকে নানাভাবে সাহায্য করার এক ধরনের ইচ্ছা কাজ করে এবং যতটা সম্ভব করে থাকেন, তাঁরা আসলে মানসিকভাবে সুখী৷ তাছাড়া নিজের ভুল স্বীকার করা, অন্যকে ক্ষমা করার মধ্য দিয়েও নিজেকে শান্তিতে রাখা যায়৷

Please follow and like us:
0