শনি. আগ ১৭, ২০১৯

সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যা

সীমান্তে বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যা

Last Updated on

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর সীমান্তে আবদুল্লাহ মণ্ডল নামে এক বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার ভোরে সীমান্ত অতিক্রম করে গরু আনতে গেলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বলে অভিযোগ স্থানীয় গ্রামবাসীর। তবে বিজিবির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। নিহত আবদুল্লাহ মণ্ডল উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামের মৃত গোলাম রসুল মণ্ডলের ছেলে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য সাকের উদ্দীন জানান, ভোরে আবদুল্লাহসহ তিন-চারজন বাংলাদেশি ঠাকুরপুর সীমান্তে যায় গরু আনতে। তারা সীমান্তের ৮৯/৯০ মেইন পিলারের কাছে অবস্থান করার সময় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের মালুয়াপাড়া ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের ধাওয়া দেয়।

এসময় অপর তিন সদস্য পালিয়ে আসতে সক্ষম হলেও বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে আবদুল্লাহ। এরপর ভোরে সীমান্তের জিরো পয়েন্টে তার লাশ পাওয়া যায়।
নিহত আবদুল্লাহর ভাই হাবিবুর রহমানের অভিযোগ, বিএসএফের হাতে ধরা পড়ার পর তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। হত্যার পর তার লাশ ফেলে রেখে যাওয়া হয় সীমান্তের জিরো পয়েন্টে। খবর পেয়ে সকালে গ্রামবাসীকে সাথে নিয়ে আমরা লাশ উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে আসি। দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, নিহত আবদুল্লাহর শরীরের বেশ কয়েকটি স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হবে। চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির পরিচালক সাজ্জাদ সরোয়ার জানান, ঠাকুরপুর সীমান্তে একজন বাংলাদেশি নাগরিকের লাশ উদ্ধারের খবর পেয়েছি। তবে কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।

Please follow and like us:
2