সমুদ্রপথেও ঢাকার সঙ্গে জোট বাঁধতে আগ্রহী দিল্লি

সমুদ্রপথেও ঢাকার সঙ্গে জোট

প্রত্যাশা ডেস্ক : াংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক এবং সাংস্কৃতিক সংযোগের পাশাপাশি কৌশলগতক্ষেত্রেও সমঝোতা গভীর করতে চায় ভারত। জোট বাঁধতে চায় সমুদ্রপথেও।
‘ভারত বাংলাদেশ- মেক ফর দ্য ওয়ার্ল্ড’ শীর্ষক দ্বিপাক্ষিক সম্মেলনে এই বার্তা উঠে আসে বলে জানিয়েছে কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা। ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, বণিকসভা ফিকি, বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্তাদের উপস্থিতিতে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী বলেন, ‘সমুদ্রাঞ্চলে ভারত এবং বাংলাদেশের মধ্যে সহযোগিতার অজস্র সম্ভাবনা রয়েছে। জাহাজ নির্মাণ, পরিকাঠামো তৈরি, সমুদ্র সম্পদ আহরণের ক্ষেত্রে এক দেশ অন্যের পারদর্শিতা কাজে লাগাতে পারে।’
দোরাইস্বামী বলেন, ‘ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে নিরাপত্তা এবং সামগ্রিক ভাবনার কেন্দ্রে রয়েছে গোটা অঞ্চলের একযোগে উন্নতির চেষ্টা। মুক্ত এবং সবার বাণিজ্যের সমান সুযোগসম্পন্ন সমুদ্রপথ তৈরি করার মাধ্যমে তা অর্জন করা সম্ভব।’
ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের উৎপাদন বিভাগের সচিব রাজ কুমার বলেন, ‘গত কয়েক বছরে ভারত এবং বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা-সহযোগিতার ক্ষেত্রে যথেষ্ট ভালো কাজ করেছে। ভারত এবং বাংলাদেশের জাহাজ তৈরি বা মেরামতের ঘাঁটি একে অন্যের থেকে দূরে নয়। সেটা বাড়তি সুবিধা।’
তিনি বলেন, ‘উৎপাদন, উন্নয়ন এবং রক্ষণাবেক্ষণের প্রশ্নে দীর্ঘমেয়াদী অংশিদারি বাংলাদেশের সঙ্গে সম্ভব। এটা দুই দেশের জন্যই লাভজনক।’
২০৩০-এর মধ্যে সামরিক ক্ষেত্রে সার্বিক আধুনিকীকরণের কাজ সম্পূর্ণ করার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে বাংলাদেশ। ভারতের প্রতিরক্ষা কর্তার মতে, দেশের প্রতিরক্ষাশিল্প সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বিভিন্ন সংস্কারের মধ্যে দিয়ে গিয়েছে। তা আন্তর্জাতিক চাহিদা মেটাতেও সক্ষম।

Please follow and like us: