বৃহঃ. আগ ২২, ২০১৯

শিশুদের জন্যে যারা

শিশুদের জন্যে যারা

Last Updated on

মুহাম্মাদ শরিফুজ্জামান : সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করছে কিছু কিশোর কিশোরী। শিক্ষা ও বস্ত্র বিতরণের পাশাপাশি শিশুদের শিক্ষিত করে তোলাই এই সংস্থার একমাত্র লক্ষ্য। তারা তাদের এই সুন্দর প্রয়াসটার নাম দিয়েছে ‘নব উত্থান।’
বিস্ময়কর হলেও সত্য, এই সংস্থার প্রতিষ্ঠার পেছনে যারা কাজ করেছেন তাদের অধিকাংশই শিশু। অর্থাৎ তাদের বয়স আঠারো বছরের নিচে এবং তারা বিভিন্ন স্কুল-কলেজে অধ্যয়নরত। ধীরে ধীরে এই সংস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের তরুণরাও যুক্ত হয়।
নব উত্থান যাত্রা শুরু করে এ বছরের শিশু দিবস তথা ১৭ মার্চে। দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে আসা সুবিধাবঞ্চিত বাচ্চাদের শিক্ষাসামগ্রী বিতরণের মধ্যে দিয়ে সংস্থাটি আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে।
বর্তমানে এই সংস্থায় ২০ জন সক্রিয় সদস্য রয়েছেন, যারা সপ্তাহে ৩-৪ দিন পদ্মা পাড় সংলগ্ন ‘টি-বাঁধ’ এলাকায় গিয়ে শিশুদের খোঁজখবর নেন, একাডেমিক পড়াশোনা করান এবং তাদের নিয়ে খেলাধুলা করেন। শিশুদের সংখ্যা প্রায় ৪৫ জন।
সংস্থাটির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, রাজশাহী কলেজে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত সামিউল ইসলাম হ্যালোকে বলে, “এসএসসির পর লম্বা ছুটিতেই আমরা সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে কাজ করব বলে ঠিক করি। আর এই অভিপ্রায়েই জন্ম নেয় নব উত্থান।”
পড়াশোনার পাশাপাশি শিশুদের সহশিক্ষামূল্পক কার্যক্রমে যুক্ত হওয়ার জন্য উদ্বুদ্ধ করা হয়। প্রতি মাসে দুটো পরীক্ষা নেওয়া হয়। উৎসাহ দেওয়ার জন্য শিশুদের পুরস্কার দেওয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে। নব উত্থান একটি স্বেচ্ছাসেবী অরাজনৈতিক সংস্থা। নব উত্থানের সদস্যরা প্রতিমাসে ৩০ টাকা চাঁদা দেয়, যা দিয়ে শিশুদের শিক্ষাসামগ্রী কেনা হয়।
এ ব্যাপারে সংস্থাটির অন্যতম আরেকজন প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য এবং রাজশাহী ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড কলেজের শিক্ষার্থী আহসানুল করিম আফ্রিদি হ্যালোকে বলে, “অরাজনৈতিক কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান বা সংস্থা যদি আমাদের সাহায্য করে, তাহলে আমরা শিশুদের আরেকটু ভালো সুবিধা দিতে পারব।
“শিশুদের বছরে বেশ কয়েকটা জামাকাপড় দিতে পারব। যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাদের উন্নতমানের শিক্ষাসামগ্রীও দিতে পারব।”
‘অর্থের বিনিময়ে শিক্ষা নয়, শিক্ষা ভালবাসায়’ স্লোগান নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে নব উত্থান। শিশুপ্রেমী শিশুগুলো শিশুদের নিয়েই অসীম পাড়ি দিতে চায়। সৌজন্যে : বিডিনিউজের শিশু সাংবাদিকতা বিষয়ক বিভাগ ‘হ্যালো’ থেকে সংগৃহীত।

Please follow and like us:
2