মঙ্গল. জুন ২৫, ২০১৯

শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ অব্যাহত

শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ অব্যাহত

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক: নিরাপদ সড়কের দাবিতে সপ্তম দিনের মতো গতকাল শনিবারও বৃষ্টির মধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয় স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। ব্যাগ কাঁধে ইউনিফর্ম পরা শিক্ষার্থীরা গতকাল শনিবার সকাল থেকে বৃষ্টির মধ্যেই বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নিয়ে সড়কে চলাচলকারী যানবাহনের চালকদের সনদ পরীক্ষা করে। বেলা ১১টার দিকে শাহবাগ, ফার্মগেট, পান্থপথ, সায়েন্স ল্যাব, মিরপুর, মতিঝিল প্রভৃতি স্থানে তাদের দেখা যায়। ফার্মগেট মোড়ে অবস্থান নেয় সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, আইডিয়াল কমার্স কলেজ ও তেজগাঁও কলেজের শিক্ষার্থীরা। গত ২৯ জুলাই রাজধানীর কুর্মিটোলার বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসের চাপায় দুই কলেজ শিক্ষার্থী নিহত হয়। এ ছাড়া আহত হয় বেশ কয়েকজন। নিহত শিক্ষার্থীরা হলো শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী দিয়া খানম মিম ও দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আবদুল করিম রাজীব। এরপর থেকে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে। তারা যানবাহন ও চালকের লাইসেন্স তল্লাশি করছে। কোনো অনিয়ম পেলে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশের কাছে মামলা করার জন্য। তারা ‘নিরাপদ সড়ক চাই’, ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ ইত্যাদি স্লোগান দিচ্ছে। সরকারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময় শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করা হচ্ছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পাল্টায় পবিহন মালিক-শ্রমিকরা বাস না নামানোয় গতকাল শনিবার সড়কে শুধু ব্যক্তিগত গাড়ি ও সিএনজি অটোরিকশাই চলাচল করে। শিক্ষার্থীরা অবরোধ তৈরি না করে শুধু এসব গাড়ি থামিয়ে চালকদের ও গাড়ির লাইসেন্স দেখতে চাচ্ছে। সকাল ১০টার পরে মিরপুর-১০ নম্বর গোল চত্বরে জড়ো হয়ে শিক্ষার্থীরা মিছিল নিয়ে মিরপুর ১ নম্বরের দিকে যায়। ফিরে ওই চত্বরে অবস্থান নিয়ে গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা শুর¤œ করে। সেখানে থাকা আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজের এক শিক্ষার্থী বলেন, সব দাবি পূরণ না হলে রাস্তা ছাড়ব না। মিরপুর-২ নম্বরে হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা। মিরপুর ১০ নম্বর সেকশনের মতো ৬, ২ ও ১ নম্বর সেকশনেও সড়কে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে অন্য দিনের মতো যান চলাচল নিয়ন্ত্রন করছে। তাদের সঙ্গে পুলিশকেও এখন সড়কে চালকদের লাইসেন্স পরীক্ষায় তৎপর দেখা গেছে। রামপুরা সেতুতে শিক্ষার্থীরা বেলা সাড়ে ১০টার দিকে সড়কে নামতে চাইলেও তা করতে দেয়নি পুলিশ। সহকারী পুলিশ কমিশনার ট্রাফিক পূর্ব অফিসের কেউ কথা সাংবাদিকদের সঙ্গে বলতে বলতে চায়নি। রামপুরা থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, জনগণের দুর্ভোগের কথা ভেবে সড়ক অবরোধ করতে দেবে না পুলিশ। এসময় শিক্ষার্থীদের ডেকে নিয়ে বোঝাতে দেখা গেছে পুলিশ সদস্যদের। পরে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবস্থান নেয়। মালিবাগ চৌধুরী পাড়ায়ও শিক্ষার্থীরা সড়কে অবস্থান নিয়ে যানবাহনের লাইসেন্স পরীক্ষা করেছে। শান্তিনগর মোড়ে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। সেখানে ভিকারনুননিসা, সিদ্ধেশ্বরী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল ও কলেজের এবং স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়েছে। শান্তিনগরে দুপুর পর্যন্ত দুটি পুলিশ ভ্যান ও দুজন পুলিশ কর্মকর্তার গাড়ি আটকে রাখে শিক্ষার্থীরা। ফার্মগেইটেও অবস্থান নেয় শিক্ষার্থীরা। যানবাহনে শৃঙ্খলার পাশাপাশি পথচারীদের ও ওভার ব্রিজ ব্যবহারে বাধ্য করে তারা। দৈনিক বাংলা মোড় থেকে প্রেস ক্লাবের রাস্তা বন্ধ থাকে।
শাহবাগে শিক্ষার্থীদের জাতীয় সংগীত পরিবেশন: রাজধানীর শাহবাগে নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন। পরে জাতীয় পতাকার প্রতি সম্মান জানিয়ে অভিবাদন (স্যালুট) জানায়। গতকাল শনিবার দুপুরে শিক্ষার্থীদের এ অবস্থায় দেখা যায়। জাতীয় সংগীত শেষ হলে তারা আবার গোল হয়ে বসে পড়ে। শাহবাগ মোড়ে জড়ো হয়েছে ঢাকা সিটি কলেজ, ধানম-ি আইডিয়াল কলেজ, বিএফ শাহীন কলেজসহ বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীরা। তারা দাঁড়িয়ে রক্ত লাগলে রক্ত নাও, নিরাপদ সড়ক চাইসহ বিভিন্ন স্লোগানে মুখরিত করে রাখে।
শিক্ষার্থীদের আইডি কার্ড পরে থাকার আহ্বান: রাজধানীর ফার্মগেটে অবস্থান নেওয়া শিক্ষার্থীদের পরিচয়পত্র বা আইডি কার্ড পরে থাকার আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল শনিবার তেজগাঁও থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম এ আহ্বান জানান। ওসি মাজহারুল ফার্মগেট মোড়ে শিক্ষার্থীদেরকে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করতে অনুরোধ জানিয়ে বলেন, তোমরা সবাই যার যার স্কুল-কলেজের আইডি কার্ড পরে রাস্তায় থাকবে। কুচক্রীরা এসে তোমাদের আন্দোলনকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করবে। বাইরের কেউ এসে রাস্তায় দাঁড়ালে আমাদের জানাবে। আর যদি সম্ভব হয় তোমরা দ্রুত রাস্তা ছেড়ে দাও। মানুষের খুব ভোগান্তি হচ্ছে।

Please follow and like us:
0