সোম. এপ্রি ৬, ২০২০

লকডাউনে খালি পেটে ১৩৫ কিলোমিটার হাঁটলেন ভারতীয় দিনমজুর

Last Updated on

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে ভারতজুড়ে দেয়া লকডাউনে যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মধ্যে বাড়ি ফিরতে খালি পেটে ১৩৫ কিলোমিটার পথ হাঁটতে হয়েছে মহারাষ্ট্রের ২৬ বছর বয়সী এক দিনমজুরকে।

নরেন্দ্র শেলকে নামের ওই যুবক পুনেতে কাজ করতেন। লকডাউনে কাজের অনিশ্চয়তা দেখা দেয়ায় গ্রামের বাড়ি চন্দ্রপুরের সাওলি এলাকার জাম্ব গ্রামের নিজ বাড়িতেই ফেরার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

রেল যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার আগে শেষ ট্রেন ধরে পুনে থেকে নাগপুরে পৌছেছিলেন; কিন্তু এরপরই পড়েন বিপাকে। কোনো উপায় না দেখে শেলকে শেষ পর্যন্ত নাগপুর-নাগবিদ সড়ক ধরেই বাড়ির পথে হাঁটা শুরু করেন বলে জানায় এনডিটিভি।

টানা দুইদিন কেবল পানি খেয়ে ১৩৫ কিলোমিটার হাঁটার পর এ যুবক বুধবার রাতে মহারাষ্ট্রের সিন্ধেওয়াহি এলাকার শিবাজি স্কয়ারে পুলিশের টহল দলের সামনে পড়েন।

পুলিশ সিন্ধেওয়াহি থানার সহকারী পরিদর্শক নিশিকান্ত রামতেকে জানান, টহল দলের সদস্যরা শেলকের কাছে কারফিউ ভঙ্গের কারণ জানতে চাইলে চন্দ্রপুরের এ বাসিন্দা তার দুর্দশার কথা জানান। বাড়ি ফিরতে তিনি যে দুইদিন ধরে খালি পেটে হাঁটছেন, বলেন তাও।

শেলকেকে তাৎক্ষণিকভাবে কাছাকাছি একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে পুলিশের এক উপপরিদর্শক বাড়ি থেকে তার (শেলকে) জন্য খাবারও নিয়ে আসেন।

চিকিৎসকের অনুমতি পাওয়ার পর পুলিশ একটি গাড়ি করে শেলকেকে সিন্ধেওয়াহি থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে জাম্ব গ্রামে দিয়ে আসে। সতর্কতামূলক পদক্ষেপ হিসেবে ২৬ বছর বয়সী এ যুবককেও বাড়িতে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে, বলেছেন রামতেকে।

Please follow and like us:
3