রমজানে ভোগ্যপণ্যের দাম কমানোর আহ্বান বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদক :  পবিত্র রমজান মাস শুরু হওয়ার আগেই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছে বিএনপি।
গতকাল বুধবার এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, পবিত্র রমজান মাসে পেঁয়াজ, রসুন, চিনি, কাঁচা মরিচ, বেগুন, আলু, হলুদ, আদা, টমেটো, শসাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি এবং তা সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে চলে যাওয়ায় আমি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি। রমজান মাসে নিয়ন্ত্রণহীন গতিতে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের আকাশচুম্বী মূল্যবৃদ্ধিতে জনগণের নাভিশ্বাস উঠবে তা বলাই বাহুল্য। মির্জা ফখরুল বলেন, ক্ষমতাসীনদের সিন্ডিকেটের কারণেই নিত্যপণ্যের দামের এই লাগামহীন অবস্থা। বিভিন্ন ধরনের মসলাপাতিসহ খাদ্য পণ্যের দাম কেজিপ্রতি ১০/১৫ টাকা থেকে শুরু করে ৪০/৫০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধিতে নিম্ন আয়ের মানুষের অবস্থা এখন বিপন্ন। পেঁয়াজের কেজিপ্রতি মূল্য ২০ টাকা থেকে উন্নীত হয়ে আড়াই গুণ-তিন গুণ হয়েছে, ৭০/৮০ টাকা কেজির নিচে বাজারে কোনো কাঁচা শাকসবজি পাওয়া দুষ্কর। বেগুন ও ধনে পাতার মূল্য হু হু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা রোজার মাসের অতি প্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্য।
বিএনপি মহাসচিব বলেন, চিনির মূল্য নিয়ন্ত্রণে না নিতে পেরে এখন একজন মন্ত্রী চিনির কল বন্ধ করার কথা বলছেন। অর্থাৎ তার বক্তব্যে মনে হয়- হাতে ফোঁড়া হলে হাত কেটে ফেলাই ভালো। গণবিচ্ছিন্ন হলেই সরকারি নেতাদের উদ্ভট কথাবার্তা বলার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। পবিত্র রমজান মাসকে কেন্দ্র করে সরকারের আশকারাতে দেশের অসাধু ব্যবসায়ীরা বাড়তি মুনাফা লাভের জন্য কারসাজির মাধ্যমে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধি করে মানুষকে ভোগান্তিতে ফেলেছেন। কিন্তু মানুষের কষ্ট লাঘব করা তো দূরে থাক, বরং সরকার চায় তাদের দলের লোকজন সিন্ডিকেট করে জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধির মাধ্যমে আঙুল ফুলে কলা গাছ হয়ে উঠুক। মির্জা ফখরুল আরো বলেন, একদিকে ভোটারবিহীন সরকারের সীমাহীন দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট মানুষ দু বেলা পেটপুরে খেতে পাচ্ছে না, অন্যদিকে মুসলমানদের পবিত্র মাস এই রমজানে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের লাগামহীন মূল্যবৃদ্ধি তাদের জন্য ‘মরার ওপর খাঁড়ার ঘা’ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এহেন দুর্বিষহ পরিস্থিতিতে পবিত্র রমজান মাসে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধিতে মানুষ এখন দিশেহারা। আমি রমজান মাসে সরকারের গণবিরোধী নীতির ফলে সৃষ্ট নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্যের দাম কমানোর জোর দাবি করছি।

Please follow and like us:
0