শনি. সেপ্টে ২১, ২০১৯

যে কোনো বয়সেই ব্যায়াম শুরু করা যায়

যে কোনো বয়সেই ব্যায়াম শুরু করা যায়

Last Updated on

লাইফস্টাইল ডেস্ক : শরীরচর্চা শুরু করার সময় কখনই ফুরিয়ে যায়নি। মধ্যবয়সি একজন মানুষ হিসেবে শরীরচর্চাকে নিজের আয়ত্বের বাইরের ব্যাপার মনে করার পেছনে যথেষ্ট্ কারণ আছে। তবে গবেষণা বলছে, মাঝ বয়সে শরীরচর্চা শুরু করলে এবং তা ধরে রাখতে পারলে এক সাধারণ মানুষও পেতে পারেন একজন পেশাগত ক্রীড়াবিদের মতো উপকার। এই গবেষণার প্রধান হলেন ইউনিভার্সিটি অফ বার্মিংহামের গবেষক লেই ব্রিন। তিনি বলেন, “জীবনের বেশিরভাগ সময় যারা শরীরচর্চা থেকে দূরে ছিলেন, তারাও যে কোনো বয়সে শরীরচর্চা শুরু করলে তার উপকারিতা উপভোগ করতে পারবেন। আর আমাদের গবেষণায় তা পরিষ্কার দেখা গেছে। তরুণ বয়স থেকে শরীরচর্চা অনুশীলন করলে অবশ্যই উপকার বেশি। তবে মধ্যবয়সে শুরু করা শরীরচর্চাও পণ্ডশ্রম নয় কখনই। তখনই বয়সজনীত নানান দুর্বলতা থেকে বাঁচতে পারবেন দীর্ঘসময়।”
‘ফ্রন্টিয়ারস ইন ফিজিওলজি’তে প্রকাশিত এই গবেষণায় দুইদল প্রবীন পুরুষের পেশির শক্তির মধ্যে পার্থক্য পর্যবেক্ষণ করা হয়। এদের মধ্যে একদল ছিলেন পেশাগত ক্রীড়াবিদ। সাত জন ৭০ থেকে ৮০ বছর বয়সি পুরুষের এই দলের প্রত্যেকেই তাদের পুরো জীবন কাটিয়েছেন নানান শরীরচর্চার অনুশীলন করে এবং আজও বিভিন্ন পেশাগত ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিয়মিত অংশগ্রহণ করছেন। অপরদলটিতে ছিলেন আট জন সুস্থ এবং কাছাকাছি বয়সের পুরুষ যারা জীবনে কখনই কোনো সুগঠিত শরীরচর্চার অনুশীলনে অংশগ্রহণ করেননি। প্রত্যেক অংশগ্রহণকারীকে ‘হেভি ওয়াটার’ পানীয়ের মাধ্যমে দেওয়া একটি করে ‘আইসোটোপ ট্রেসার’ এবং পরবর্তীতে যোগ দেন শরীরচর্চায়। ভারোত্তলন এবং যন্ত্রভিত্তিক বিভিন্ন শরীরচর্চা এসময় অনুশীলন করেন অংশগ্রহণকারীরা। শরীরচর্চা শুরুর আগের ৪৮ ঘণ্টা এবং শেষ করার পর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে অংশগ্রহণকারীদের পেশির ‘বায়োপসি’ পরীক্ষা করেন গবেষকরা। যা থেকে জানা যায় শরীরচর্চার প্রতি পেশি কীভাবে সাড়া দিচ্ছে। আর ‘আইসোটোপ ট্রেসার’ জানায় পেশির মধ্যে প্রোটিন কীভাবে ব্যবহার হচ্ছে। গবেষকদের প্রাথমিক ধারণা ছিল, পেশাগত ক্রীড়াবিদদের পেশি গঠন করার ক্ষমতা বেশি হবে। কারণ তারা জীবনের লম্বা সময় ধরে শরীরচর্চা করে আসছেন। তবে ফলাফলে দেখা দুই দলের সদস্যদেরই পেশি গঠন করার ক্ষমতা ছিল সমান।

Please follow and like us:
2