মঙ্গল. আগ ২০, ২০১৯

যেভাবে রক্ষা পেল কুকুরগুলো

যেভাবে রক্ষা পেল কুকুরগুলো

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : ‘রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনি এলাকায় কিছু যুবক রাস্তার কুকুর ধরে অন্যায়ভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলছে।’ গত ৩ ফেব্রুয়ারি ‘রবিনহুড ডি এনিমেল রেসকিউয়ার’ ফেসবুক গ্রুপ এমন খবর পায়। খবর পেয়ে সেখানে উপস্থিত হন সংগঠনটির চেয়ারম্যান আফজাল খান। তার হস্তক্ষেপে রক্ষা পায় ৩০-৪০টি কুকুর।
জানা যায়, খবর পাওয়ার পর স্থানীয় স্কাউট লিডার আরএসএল মুনিয়ার সাথে কথা হয় প্রাণিপ্রেমী আফজাল খানের। মুনিয়ার কাছ থেকেই পুরো ঘটনাটি শোনেন তিনি।
মুনিয়া তাকে বলেন, ‘এলাকার কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবক সব কুকুর মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছিল। ফলে এলাকার প্রাণিপ্রেমীদের মনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। ঘটনাটি প্রচ- নির্দয়-নিষ্ঠুর। তাই এলাকার পোষা কুকুরগুলোকে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল।’
এরপর গত মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ‘রবিনহুড ডি এনিমেল রেসকিউয়ার’ টিম শাহজাহানপুর কলোনিতে যায়। সেখানে শাহজাহানপুর থানার ওসি রেজাউল, থানা শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান কমল ও স্কাউট লিডার আরএসএল মুনিয়ার সহায়তায় বিষয়টি সমাধান করা হয়।
কামরুজ্জামান কমল বলেন, ‘আমরা প্রাণি হত্যার পক্ষে না। প্রত্যেকটি প্রাণির বাঁচার অধিকার আছে। সুতরাং প্রাণি হত্যা বন্ধের জন্য ‘রবিনহুড ডি এনিমেল রেসকিউয়ার’ টিম নিয়ে এলাকাবাসীকে সচেতন করব। ৩০-৪০টি কুকুরকে ভ্যাকসিন দেব, যাতে মানুষের মনের আতঙ্ক কেটে যায়।’
তিনি বলেন, ‘রবিনহুড ডি এনিমেল রেসকিউয়ার টিম ওই এলাকার কুকুরগুলোকে ভ্যাকসিন দেবে এবং একটি ক্যাম্পেইন করে আসবে আর যেন নিষ্ঠুরভাবে প্রাণি হত্যা করা না হয়। প্রত্যেকটি প্রাণি আমাদের পরিবেশের একটি অংশ। নিষ্ঠুরতা কোনো কিছুর সমাধান নয়।’
রবিনহুড ডি এনিমেল রেসকিউয়ার টিমের প্রধান আফজাল খান বলেন, ‘অন্যায়ভাবে কুকুরগুলোকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। আমরা প্রশাসন ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সহায়তায় কুকুরগুলোকে রক্ষা করতে পেরেছি। তবে ভ্যাকসিনের মাধ্যমে কুকুরগুলোকে নিরাপদ করা হবে।’

Please follow and like us:
2