যুক্তরাষ্ট্রকে বিড়াল বললেন খামেনি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লা আলী খামেনি তার দেশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকাকে ‘টম অ্যান্ড জেরি’ কার্টুনের বিড়ালের সঙ্গে তুলনা করেছেন। ব্লুমবাগের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।
ইরানে ইসলামিক প্রজাতন্ত্রের চার দশক পূর্তিতে কর্মকর্তাদের এক সমাবেশে খামেনি বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ইরানকে পর্যুদস্ত করার জন্য নানা রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামরিক পদক্ষেপ নিয়েছে এবং অপপ্রচারের মতো কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের সব অস্ত্র ব্যর্থ হয়েছে। ‘টম অ্যান্ড জেরি’-র বিখ্যাত সেই বিড়ালের মতো তারা হেরেই চলেছে। ৭৮ বছর আগে কার্টুন সিরিজটি তৈরি হয়। সেখানে সাহসী ইঁদুর জেরি ক্রমাগত বিড়াল টমকে বোকা বানায়। যদিও তারা একে অপরকে বিরক্ত করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর ইরানের প্রতি নানাবিধ দাবির প্রেক্ষাপটে খামেনি মন্তব্যটি তার নিজস্ব ওয়েবসাইটে উল্লেখ করেন। পম্পেও ইরানের প্রতি দাবির একটি তালিকা দেন, সেসবের মধ্যে ছিল পরমাণু কার্যক্রম স্থায়ীভাবে বন্ধ এবং হিজবুল্লাহর মতো সংগঠনগুলোর ওপর থেকে ইরানের সমর্থন প্রত্যাহার করা। হিজবুল্লাহসহ আরও কিছু সংগঠনকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জঙ্গি সংগঠন মনে করে। পম্পেওর এ বক্তব্য ওয়াশিংটনের মনোভাব তুলে ধরেছে। এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানের পরমাণু সীমিতকরণ চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সরে যাওয়ার ঘোষণা দেন। ওই চুক্তির ফলে অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা শিথিল ছিল ইরানে। ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জার্মানিসহ অন্য রাষ্ট্রগুলো চাইছে চুক্তিটি বাঁচাতে। খামেনি বলেন, ইরানের ‘ইউরোপের সঙ্গে বিরোধ নেই’ কিন্তু ‘ইরান তাদের বিশ্বাস করে না’। ইউরোপের উচিত ইরানের প্রাপ্য ওই চুক্তির অর্থনৈতিক সুবিধাগুলো নিশ্চিত করা উচিত। খামনি বলেন, ‘ইরান যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাজ করতে পারে না। কেননা, তারা প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে না।’ খামেনি তার অনুসারীদের কাছে সাহিত্যের একজন অনুরক্ত হিসেবে পরিচিত। ভিক্টর হুগোর ‘লা মিজেরঁ’কে তিনি এ পর্যন্ত লেখা সর্বশ্রেষ্ঠ উপন্যাস বলে মনে করেন।

Please follow and like us:
0