বুধ. ডিসে ১১, ২০১৯

মবিল বাংলাদেশের পাটনার্স মিট অনুষ্ঠিত

মবিল বাংলাদেশের পাটনার্স মিট অনুষ্ঠিত

Last Updated on

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : এক্সন মবিলের স্ট্র্যাটেজিক অ্যালায়েন্স পার্টনার এম জে এল বাংলাদেশ লিমিটেডের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়েছে পাটনার্স মিট-২০১৯। রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে মঙ্গলবার (৩০ জুলাই) রাতে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বুধবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইস্ট কোস্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এম জে এল বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আজম জে চৌধুরী। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন এম জে এল বাংলাদেশ লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এম মুকুল হোসেন, জেনারেল ম্যানেজার সালাহ্উদ্দিন আহমেদসহ প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এবং চ্যানেল পার্টনাররা।
দেশব্যাপী এমজেএলবিএলের সঙ্গে চ্যানেল পার্টনারদের সম্পর্ক আরও নিবিড় ও জোরদার করাই ছিল এ অনুষ্ঠানের মূল লক্ষ্য। অনুষ্ঠানে চ্যানেল পার্টনার ও এমজেএলবিএলের সিনিয়র ম্যানেজমেন্টের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়। ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ব্যবসার বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন এবং ব্যবসার ক্রমান্নতির কৌশল সম্পর্কে কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে মবিল-এর চারটি নতুন পণ্য উন্মোচন করা হয়। দৃষ্টিনন্দন লেজার শো-এর সঙ্গে সঙ্গে পণ্যগুলো সবার সামনে আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরেন মডেল ও অভিনেত্রী মেহজাবীন চৌধুরী। মবিল-এর নতুন পণ্য হলো গড়নরষ ১ ০ড-২০ (হাইব্রিড এবং নতুন প্রজন্মের গাড়ির জন্য ফুল-সিন্থেটিক ইঞ্জিন অয়েল), গড়নরষ ঝঁঢ়বৎ ২০০০ ৫ড-৩০ (যাত্রীবাহী যানবাহনের জন্য প্রিমিয়াম সেমি-সিন্থেটিক ইঞ্জিন অয়েল) এবং মোটরসাইকেলের জন্য দুই গ্রেডের ইঞ্জিন অয়েল গড়নরষ ঝঁঢ়বৎ গড়ঃড় ১০ড-৩০ এবং ২০ড-৪০।
এরপর চ্যানেল পার্টনারদের সেলস পারফরমেন্সের স্বীকৃতি হিসেবে দেয়া হয় মবিল অ্যাওয়ার্ড ২০১৯। কান্ট্রি হায়েস্ট সেলার, স্পেশাল রিকগনেশন, রিজিওনাল হায়েস্ট সেলার এবং টেরিটরি হায়েস্ট সেলার ক্যাটাগরিতে এ অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। কান্ট্রি হায়েস্ট সেলার ক্যাটাগরিতে মবিল অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ বিজয়ী হন মেসার্স যমুনা অয়েল সাপ্লায়ার্স। একইসঙ্গে স্পেশাল রিকগনেশন ক্যাটাগরিতে লিউব ১০০ ইন্টারন্যাশনাল এবং এসকে ট্রেডার্স, রিজিওনাল হায়েস্ট সেলার ক্যাটাগরিতে মেসার্স এম রহমান লুব্রিক্যান্টস, মেসার্স এম আহমেদ অ্যান্ড সন্স, রহমান ব্রাদার্স এবং এম আলম ব্রাদার্স মবিল অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ অর্জন করে।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আজম জে চৌধুরী বলেন, ‘এক্সন মবিল ধারাবাহিক উদ্ভাবনের মাধ্যমে মানসম্মত পণ্য উৎপাদনে বিশ্বাসী। এ উদ্ভাবনের ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের বাজারে আনা হয়েছে নতুন পণ্যসমূহ যা নতুন এবং পরবর্তী প্রজন্মের ইঞ্জিনগুলোর জন্য উন্নত প্রযুক্তির ইঞ্জিন অয়েলের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম।’
আজম জে চৌধুরী বলেন, ‘যুগ যুগ ধরে বাংলাদেশি গ্রাহকদের কাছে মবিল একটি নির্ভরযোগ্য নাম। সেই সঙ্গে এক্সন মবিল সেরা প্রযুক্তি ব্যবহার করে মবিলের বিভিন্ন পণ্য তৈরি ও বাজারজাতকরণের মাধ্যমে দেশের লুব্রিক্যান্ট চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে এম জে এল বাংলাদেশ লিমিটেড। আমরা সবসময় সব ক্ষেত্রে ব্যবসাকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে আমাদের চ্যানেল পার্টনারদের সুবিধাকে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি। এমজেএলবিএল’র সঙ্গে ব্যবসার মাধ্যমে উভয় পক্ষ সবসময় লাভবান হোক-এটাই আমাদের কাম্য।’

Please follow and like us:
0