বৃহঃ. নভে ১৪, ২০১৯

‘ভিসির দুর্নীতির প্রমাণ না দিলে আন্দোলনকারীদেরই সাজা’

‘ভিসির দুর্নীতির প্রমাণ না দিলে আন্দোলনকারীদেরই সাজা’

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : দুর্নীতির অভিযোগ এনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের অপসারণ দাবিতে আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তারা (আন্দোলনকারী) যদি তথ্য দিতে পারেন নিশ্চয়ই ব্যবস্থা নেবো। আর যদি প্রমাণে ব্যর্থ হয়, তাহলে দুর্নীতি করলে যে শাস্তি সে সাজা তারা পাবে।
গতকাল বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অসুস্থ, অসচ্ছল ও দুর্ঘটনায় আহত সাংবাদিক এবং নিহত সাংবাদিক পরিবারের সদস্যদের অনুকূলে আর্থিক অনুদানের চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমার স্পষ্ট কথা, যারা দুর্নীতির অভিযোগ আনছে, তাদের কিন্তু এ অভিযোগ প্রমাণ করতে হবে। এবং তাদের তথ্য দিতে হবে। তারা যদি তথ্য দিতে পারেন নিশ্চয়ই আমরা ব্যবস্থা নেবো।
তিনি বলেন, জাহাঙ্গীনগর ইউনিভার্সিটি- তাদের প্রমাণ করতে হবে। যদি কেউ প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়, প্রত্যেকে যারা অভিযোগ নিয়ে আসছে, যারা বক্তৃতা দিচ্ছে, সমস্ত ফুটেজ সংরক্ষণ করতে হবে। যদি দুর্নীতি প্রমাণ করতে ব্যর্থ হয়, তাহলে দুর্নীতি করলে যে শাস্তি, যার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে তার যে শাস্তি হতো, অভিযোগ করে সে যদি ব্যর্থ হয় প্রমাণ করতে তাকে কিন্তু সে সাজা পেতে হবে। এটা কিন্তু আইনে আছে।
‘মিথ্যা অভিযোগ করলে তার বিরুদ্ধে কিন্তু আইনি ব্যবস্থা নেবো। এবং সে ব্যবস্থা কিন্তু আমরা নেবো। এটা আমার স্পষ্ট জানিয়ে দিলাম।’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ইতোমধ্যে বলে দিয়েছি যারা বক্তৃতা দিচ্ছেন, কথা বলছেন, লিফলেট বিতরণ, সব ফুটেজ রেকর্ড করতে। এবং তারা যদি প্রমাণ না করতে পারে অত টাকা নিয়েছে, তাদের প্রমাণ করতে হবে ওই টাকা নিয়ে কোথায় রাখলো, না কি করলো খুঁজে বের করতে হবে।
‘মুখে বললে তো হবে না। কারণ সুনির্দিষ্টভাবে জানে বলেই তো অভিযোগ করেছে, সুনির্দিষ্টভাবে যেহেতু জানে তাহলে অভিযোগটা করবে না কেন? বা প্রমাণ দেবে না কেনো?’

Please follow and like us:
3