Published On: রবিবার ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮

প্রত্যাশা ডেস্ক : লন্ডনের মেয়র সাদিক খান ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেনের বের হয়ে যাওয়া (ব্রেক্সিট) নিয়ে আরেকবার গণভোট আয়োজনের দাবি জানিয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম অবজারভারে রোববার প্রকাশিত নিবন্ধে তিনি এ দাবি জানিয়েছেন।
সাদিক খান বলেছেন, ব্রেক্সিট নিয়ে প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র আলোচনা সংশয়ের পাঁকে নিমজ্জিত এবং অচলাবস্থার মধ্যে পড়েছে। এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী দেশকে ক্ষতিকর পথের দিকে নিয়ে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।
আগামী বছরের ২৯ মার্চ ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে ব্রিটেন আনুষ্ঠানিকভাবে বের হয়ে যাবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র ব্রেক্সিট পরিকল্পনা এখনো পার্লামেন্টের অনেক সদস্য প্রত্যাখ্যান করেছেন। অনেক এমপি, ইউনিয়ন এবং ব্যবসায়ী নেতাদের দাবি ব্রাসেলসের সঙ্গে কোনো চুক্তির আগে জনগণের চূড়ান্ত রায় প্রয়োজন। তবে থেরেসা মে বরাবরই এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে আসছেন। বরঞ্চ তিনি বলে আসছেন, চূড়ান্ত চুক্তি মেনে নেবে কিনা কিংবা তাতে কোনো সংশোধন হবে কিনা এমপিরা কেবল সেই বিষয়ে ভোট দেবেন, অন্য কোনো কিছুতে নয়। ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে ব্রাসেলস ও লন্ডনের মধ্যে নির্ধারিত সময়ে কোনো সমঝোতায় পৌঁছানো যাচ্ছে না বিধায় ব্রিটিশ সরকার চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিটের পরিকল্পনা করছে। লেবার পার্টির জ্যেষ্ঠ নেতা সাদিক খান লিখেছেন, ব্রিটেনকে এখন হয় বাজে চুক্তি নতুবা ব্রেক্সিটে চুক্তি নয়- এ ধরনের কিছুর মুখোমুখি হতে হচ্ছে, যার উভয়টাই ব্রিটেনের জন্য ক্ষতিকর। তিনি লিখেছেন, ‘সরকারের শোচনীয় ব্যর্থতা- এবং বাজে চুক্তি অথবা চুক্তি ছাড়া ব্রেক্সিটে আমরা প্রচন্ড ঝুঁকির মুখে রয়েছি। যার মানে হচ্ছে জনগণকে এই মুহূর্তে নতুন করে মত দেওয়ার সুযোগ সঠিক এবং এটাই আমাদের দেশের জন্য একমাত্র পথ খোলা রয়েছে। ’

Videos