শনি. এপ্রি ২০, ২০১৯

বিপুলসংখ্যক গৃহহীন পরিবারকে সরকারিভাবে গৃহদানের উদ্যোগ

বিপুলসংখ্যক গৃহহীন পরিবারকে সরকারিভাবে গৃহদানের উদ্যোগ

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকার দেশের গৃহহীন পরিবারকে ঘর দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে। চলতি বছরের মধ্যেই প্রতি জেলায় কমবেশি এক হাজার করে মোট ৬৪ হাজার আধা-পাকা ঘর নির্মাণ করে গৃহহীন পরিবারকে দেয়া হবে। ওই লক্ষ্যে বাতিল করা হচ্ছে টিআর-কাবিটার বিশেষ বরাদ্দ। বরং তার পরিবর্তে বরাদ্দের সমপরিমান টাকা দিয়ে গৃহহীনদের ঘর করে দেয়া হবে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা যায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, প্রতি আর্থিক বছরে সংসদ সদস্যদের খরচ করার ক্ষমতা দিয়ে টিআর খাতে প্রায় ২০০ কোটি টাকা বা সমমানের চাল এবং কাবিটার জন্য ১০০ কোটি টাকা নগদ প্রদান করা হতো। তাকে বিশেষ বরাদ্দ বলা হয়ে থাকে। কিন্তু ওই বিশেষ বরাদ্দ নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের মধ্যে কোন্দল থেকে শুরু করে দুর্নীতির সুযোগ তৈরি হয়। এমন অবস্থায় দলীয় দুর্নীতি-কোন্দল বন্ধের পাশাপাশি বাসস্থনের মতো মৌলিক চাহিদা মেটাতেই সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
সূত্র জানায়, গৃহহীন পরিবারের জন্য প্রস্তাবিত প্রতিটি ঘরের আয়তন হবে ৩ থেকে ৪শ’ বর্গফুট। তাতে দুটি কক্ষ, একটি টয়লেট ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা থাকবে। ছাদ হবে টিনের। ঘর তৈরির পুরো খরচই বহন করবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের নিকট থেকে জমি আছে কিন্তু ঘর নেই এমন ব্যক্তিদের তালিকা গ্রহণ করা হবে। সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তা যাচাই-বাছাই করে যে তালিকা দেবেন ওই অনুযায়ী মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির অনুকুলে ঘর বরাদ্দ করবে। সেখানে এমপি বা উপজেলা চেয়ারম্যানদের কোন ভূমিকা থাকবে না।
এদিকে এ প্রসঙ্গে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘গৃহহীনকে গৃহ দান’ কর্মসূচিকে অগ্রাধিকার দিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। দুই ধাপে ৬৪ হাজার ঘর নির্মানের কাজ শেষ হবে। আগামী জুনের মধ্যে ৩২ হাজার এবং বছরের শেষ মাস অর্থাৎ ডিসেম্বরের মধ্যে বাকি ৩২ হাজার ঘর নির্মাণ হবে। চাহিদা অনুযায়ী এ কর্মসূচী পরবর্তী বছরের জন্যও বিবেচনা করা হবে। স্থানীয় পর্যায়ে ইউএনও এ ক্ষেত্রে তদারকির দায়িত্বে থাকবেন। কেন্দ্রীয় পর্যায়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর ও মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের বিশেষ দায়িত্বে রাখা হবে। এক্ষেত্রে দুর্নীতি বন্ধে সরকারের স্বপ্ন বাস্তবায়নে কোন ক্ষেত্রে শৈথিল্য মেনে নেয়া হবে না। সব ধরনের পদক্ষেপই নেয়া হবে।

Please follow and like us:
0