রবি. এপ্রি ২১, ২০১৯

বিক্রয় চাপে কমেছে সূচক

বিক্রয় চাপে কমেছে সূচক

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে গতকাল (সোমবার) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হওয়া ১৯৩ কোম্পানির দর কমেছে। এ সময় ডিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক কমেছে ১৬.৯১ পয়েন্ট কমেছে। অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৯ কোটি ৯ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসইর সাধারণ মূল্যসূচক ১৪.২৩ পয়েন্ট কমেছে। ডিএসই ও সিএসইর বাজার পর্যালোচনায় এ তথ্য জানা গেছে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩৪১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট। এর মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১০৭টির, শেয়ার দর কমেছে ১৯৩টির এবং শেয়ার দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টির প্রতিষ্ঠানের। এ সময় ডিএসইতে ৫ কোটি ৯০ লাখ ৯২ হাজার ৮২২টি শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৬.৯১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৩০৯ পয়েন্টে। অপরদিকে শরিয়াহ সূচক ৪.৪২ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ১.৬২ পয়েন্টে কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১২২৮ ও ১৯০১ পয়েন্টে।
ডিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ২৯৬ কোটি ২ লাখ টাকা। এর আগে গত বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ২৮৪ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছিল। ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে ফরচুন সুজের। কোম্পানিটির ৩৩ কোটি ৯১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২২ কোটি ২৯ লাখ টাকার লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ছিল মুন্নু সিরামিক এবং ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা লেনদেনে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস। টপটেন লেনদেন উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার, স্কায়ার ফার্মা, এস্কয়ার নিট কম্পোজিট, লিবরা ইনফিউশন, গ্রামীণফোন, মুন্নু স্ট্রাফলার্স ও ইস্টার্ন ক্যাবলস। অপরদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএসসিএক্স এদিন ১৪.২৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ৮৫৯ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২১৯টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৭৯টির, কমেছে ১০৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির দর। সিএসইতে আজ ৯ কোটি ৯ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

Please follow and like us:
0