পাতলা পোশাকে শরীর দেখিয়ে কাঠগড়ায় অভিনেত্রী

পাতলা পোশাকে শরীর দেখিয়ে কাঠগড়ায় অভিনেত্রী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : খোলামেলা পোশাক পরিধানের কারণে আদালতের মুখোমুখি হতে হচ্ছে মিশরের এক অভিনেত্রীকে। দেশটির রাজধানী কায়রোতে অনুষ্ঠিত ‘কায়রো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে’ প্রায় স্বচ্ছ পোশাকে হাজির হওয়ার কারণে আদালতে যেতে হচ্ছে তাকে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বিচারিক আদালেতের একাধিক সূত্রের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কায়রো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে রানিয়া ইউসেফ নামের ওই অভিনেত্রী এমন একটি পোশাক পড়ে উপস্থিত হয়েছিলেন যে তার উরু পর্যন্ত দেখা যাচ্ছিল। বৃহস্পতিবার উৎসবের শেষ দিন সন্ধ্যায় রানিয়া লেইসওয়ালা একটি কালো পোশাক পড়ে উপস্থিত হন। অনেকেই তার এই পোশাকটিকে সুইম স্যুট হিসেবে অভিহিত করেছেন। রানিয়া চলচ্চিত্র উৎসবে এমন পোশাক পড়ে উপস্থিত হয়ে ব্যাভিচারকে উসকে দিয়েছেন দাবি করে তার বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দেন দু’জন আইনজীবী। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, আদালতে ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে যদি অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে তার।
রানিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম মামলাটি দায়ের করেন আমরো আব্দেল সালাম নামের একজন আইনজীবী। এরপর সামির সাবরি নামে অপর এক আইনজীবী ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় মামলাটি করেন। সামির সাবরি নামের ওই আইনজীবী তারকাদের আদালতের মুখোমুখি করা নিয়ে বেশ পরিচিত।

তিনি বার্তাসংস্থা এএফপিকে বলেন, ‘রানিয়া ইউসেফের প্রকাশ্যে এরকম পোশাক পরিধান করে উপস্থিত হওয়া কোনোভাবেই আমাদের সামাজিক মূল্যবোধ, ঐতিহ্য, নীতি-নৈতিকতা ও উৎসবের সুনামের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। বিশেষ করে মিশরের মেয়েদের জন্য তো নয়ই।’
তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরা ওই ছবি নিয়ে ওই অভিনেত্রীর পক্ষে-বিপক্ষে মন্তব্য করছেন দেশটির মানুষ। কিছু মানুষ তার এই কাজের সমালোচনা করলেও অনেকেই বলছেন কে কী পোশাক পরিধান করবে এটা একান্তই তার ব্যক্তিগত ইচ্ছা-অনিচ্ছার ব্যাপার। আগামী ১২ জানুয়ারি ওই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে করা মামলার শুনানির দিন ধার্য করেছে আদালত।

Please follow and like us:
0