রবি. মে ১৯, ২০১৯

নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব দিতে আরও সময় পেল ৩৭ দল

নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব দিতে আরও সময় পেল ৩৭ দল

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া নিবন্ধিত ৩৭টি রাজনৈতিক দলকে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব দেওয়ার জন্য আরও এক মাস সময় দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। ইসির উপ সচিব আব্দুল হালিম খান জানান, নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব বিবরণী দেওয়ার জন্য পুরো মে মাস সময় দেওয়া হয়েছে। বর্ধিত এই সময়ের মধ্যে বিবরণী জমা দিতে গতকাল রোববার দলগুলোর সাধারণ সম্পাদক/মহাসচিবের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে।
ভোটের ফলের গেজেট প্রকাশের পর পরবর্তী তিন মাসের মধ্যে ব্যয়ের হিসাব নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়ার নিয়ম রয়েছে গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশে। একাদশ সংসদ নির্বাচনের ফল গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়েছিল ১ জানুয়ারি। সে অনুযায়ী রাজনৈতিক দলগুলোর ২ এপ্রিলের মধ্যে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব বিবরণী জমা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভোটে থাকা ৩৯টি দলের মধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও ন্যাপ ছাড়া আর কোনো দল ওই সময়ে হিসাব বিবরণী দাখিল করেনি। এ কারণে বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ ৩৭টি দলকে আরও এক মাস সময় দেওয়া হল বলে উপ সচিব আব্দুল হালিম খান জানান।
তিনি বলেন, “নির্ধারিত সময়ে হিসাব দিতে ব্যর্থ দলগুলোকে পরবর্তী এক মাসের মধ্যে বিবরণী জমা দেওয়ার তাগাদা দিতে চিঠি দেওয়া হল। এরপরও ব্যর্থ হলে জরিমানাসহ ১৫ দিনের মধ্যে হিসাব জমা দেওয়ার সুযোগ পাবে। এরপরও হিসাব না দিলে নিবন্ধন বাতিলের সুযোগ রয়েছে ইসির।”
নির্বাচনী আইন অনুযায়ী প্রার্থী অনুপাতে দলগুলোর জাতীয় নির্বাচনে ৭৫ লাখ টাকা থেকে সাড়ে চার কোটি টাকা পর্যন্ত ব্যয় করার সুযোগ রয়েছে। প্রার্থীর সংখ্যা ৫০ জনের কম হলে দলের পক্ষ থেকে সব মিলিয়ে ৭৫ লাখ টাকা, ১০০ জন পর্যন্ত প্রার্থীর ক্ষেত্রে দেড় কোটি টাকা, ২০০ জন পর্যন্ত প্রার্থীর ক্ষেত্রে ৩ কোটি টাকা এবং ২০১ প্রার্থীর বেশি হলে সাড়ে চার কোটি টাকা ব্যয় করার সুযোগ রয়েছে। এর আগে দশম সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়া ১২টি দলই নির্ধারিত সময়ে হিসাব দিতে ব্যর্থ হওয়ায় সতর্ক করেছিল ইসি।

Please follow and like us:
0