রবি. জুলা ২১, ২০১৯

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ- দাবি ঢাবি ছাত্রীদের

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ- দাবি ঢাবি ছাত্রীদের

Last Updated on

নিজস্ব প্রতিবেদক : ধর্ষণের ঘটনায় অপরাধীর প্রকাশ্য মৃত্যুদ- দাবিতে মানববন্ধন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে মানববন্ধনে পাঁচ শতাধিক ছাত্রী অংশ নেন। ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ছাত্রীবৃন্দ’ ব্যানারে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বিভিন্ন বিভাগের ছাত্ররাও সংহতি প্রকাশ করেন। মানববন্ধনে ডাকসু ও বিভিন্ন হল সংসদ এবং হল ছাত্রলীগের নেত্রীদেরকেও দেখা গেছে। ‘ধর্ষকের শাস্তি মৃত্যুদ- চাই’, ‘ধর্ষকের শাস্তি নয়, মৃত্যুদ- চাই’, ‘শাস্তির মাধ্যমে ধর্ষকের সংশোধন নয়, বিনাশ চাই’, ‘পরবর্তী ধর্ষিতা আমি হবার আগে আমার সুরক্ষা রাষ্ট্রকে বুঝিয়ে দিতে হবে’, ‘ধর্ষকের উল্লাস, ধর্ষিতার কান্না, আর মেনে নেব না’- নানা স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড নিয়ে মানববন্ধনে দাঁড়ান শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে রোকেয়া হল সংসদের এজিএস ফাল্গুনী দাস তন্নী বলেন, সবকিছু সহ্যের সীমা আছে, অনবরত প্রতিদিন একটা না একটা ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে, এটা মানার মতো না। একটা ছোট শিশু তার মধ্যে কি আছে যে ধর্ষকরা কামুক হয়ে থাকে। তাই আমাদের চাওয়া ধর্ষকের সংশোধন নয়, বিনাশ। এজন্য ধর্ষকদের প্রকাশ্যে মৃত্যুদ- দিতে হবে। শামসুন নাহার হল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াসমিন শান্তা বলেন, আমরা দেখছি, কিছুকিছু ক্ষেত্রে ধর্ষকদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। কিন্তু এই গ্রেফতার কার্যকর করা হচ্ছে না। আমরা চাই, এটা কার্যকর করা হোক এবং ধর্ষকদের বিশেষ ট্রাইব্যুনালের মাধ্যমে ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে তাদের মৃত্যুদ- কার্যকর করা হোক প্রকাশ্যে। এই দাবিতে ছাত্রীরা আগামি বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী এবং প্রধান বিচারপতিকে স্মারকলিপি দেওয়ার ঘোষণা দেন।

Please follow and like us:
2