দেশে মৃত্যু কমে পাঁচজনে নামল, নতুন শনাক্ত ৩৫০

দেশে মৃত্যু কমে পাঁচজনে নামল, নতুন শনাক্ত ৩৫০

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে, যা নয় মাসের মধ্যে সর্বনি¤œ। তাদের মধ্যে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ৩৪২ জনে। একই সময়ে আরও ৩৫০ জনের দেহে প্রাণঘাতী ভাইরাসটির সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাদের নিয়ে মোট ৫ লাখ ৪৩ হাজার ২৪ জন ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন। গত ১২ ফেব্রুয়ারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছিল, যা ছিল গত ৯ মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। এরও আগে গত বছরের ৬ মে ৩ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এছাড়া, শনাক্তের হারও কমে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার তিন দশমিক ১৪ শতাংশ। বেড়েছে সুস্থতার হারও।
গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন পাঁচ জন। সরকারি হিসাবে দেশে এ পর্যন্ত করোনায় মোট মারা গেছেন ৮ হাজার ৩৪২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৩৫০ জন। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত হয়েছেন পাঁচ লাখ ৪৩ হাজার ২৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৪২৪ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৯০ হাজার ৮৯২ জন।
অধিদপ্তর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার তিন দশমিক ১৪ শতাংশ, এখন পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮০ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৪০ শতাংশ আর মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ। দেশে বর্তমানে ২১৪টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এরমধ্যে আরটি-পিসিআরের মাধ্যমে পরীক্ষা হচ্ছে ১১৭টি পরীক্ষাগারে, জিন-এক্সপার্ট মেশিনের মাধ্যমে পরীক্ষা হচ্ছে ২৯টি পরীক্ষাগারে। র‌্যাপিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা হচ্ছে ৬৮টি পরীক্ষাগারে।
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১১ হাজার ২২টি, নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১১ হাজার ১৪৮টি। এখন পর্যন্ত দেশে করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৯ লাখ ৩৩ হাজার ৬৩৭টি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, মারা যাওয়া পাঁচজনের মধ্যে পুরুষ তিনজন আর নারী দুই জন। মারা যাওয়া সবাই ঢাকা বিভাগের। মৃত পাঁচজনের বয়স বিবেচনায় ৫১ বছরের বেশি বয়সী একজন। বাকি চারজন ষাটোর্ধ্ব। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া ৪২৪ জনকে নিয়ে মোট ৪ লাখ ৯০ হাজার ৮৯২ জন সুস্থ হয়েছেন ভাইরাসটি থেকে।

Please follow and like us: