মঙ্গল. মার্চ ৩১, ২০২০

দুর্দিনে মোদীকে কটাক্ষ করে সমালোচিত অপর্ণা সেন

দুর্দিনে মোদীকে কটাক্ষ করে সমালোচিত অপর্ণা সেন

Last Updated on

বিনোদন ডেস্ক : উপমহাদেশের বড় দেশ ভারতেই করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সর্বাধিক। এ দুঃসময়ে স্বাস্থ্য ও পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করতে সারা ভারতের মানুষ হাততালি, কাঁসর, শঙ্খ বাজিয়ে অভিবাদন জানায়। কিন্তু এটা নিয়েও কটাক্ষ করেছেন অভিনেত্রী-চিত্রনির্মাতা অপর্ণা সেন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে সাড়া দিয়ে দেশটির দুঃসময়েও যারা নিবেদিতভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন আমজনতা থেকে সেলিব্রিটি। রোববার (২৩ মার্চ) বিকেল ৫টায় হাততালি, শঙ্খ এবং কাঁসরের আওয়াজে মুখর হয়ে উঠেছিল সারা দেশ। রাস্তার টোকাই, বস্তির বৃদ্ধা থেকে শুরু করে বলিউডের সেলিব্রিটি এবং মন্ত্রী-সাংসদ সকলেই স্বতঃস্ফূর্ত সাড়া দিয়েছেন।
আমজনতার এমন অভূতপূর্ব সাড়ায় সবাই যখন মুগ্ধতা প্রকাশ করছেন, সেসময়ে মোদীর এই উদ্যোগকে কটাক্ষ করে নেটিজেনদের রোষের মুখে পড়লেন অপর্ণা সেন। টুইটারে একটি পোস্টে নরেন্দ্র মোদীর নাম উল্লেখ না করে অপর্ণা লেখেন, ‘যদি একটি মাত্র বক্তৃতাতেই সারা দেশ হাজার হাজার হাততালিতে ফেটে পড়তে পারে তবে উত্তর-পূর্ব দিল্লি যখন জ্বলছিল তখন সেই কণ্ঠ চুপ ছিল কেন?’ এই পোস্টের সঙ্গে সঙ্গেই নেটিজেনদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন অপর্ণা সেন।
অরিজিৎ নামে একজন অপর্ণার পোস্টের নিচে মন্তব্য করেন, ‘আপনাদের থেকে গ্রামের অশিক্ষিত মানুষগুলো অনেক বুদ্ধিমান। তারাও দেশ ও দশের ভালো চাইছে। আপনারা এই অবস্থাতেও রাজনীতি করতে ছাড়ছেন না!’ জয়ন্ত মুখার্জি নামে একজন লেখেন, ‘আপনি নাটকটা কম করুন। আপনারাও বড় ভাইরাস দেশের জন্য।’ সজীব চৌধুরী নামে একজন লেখেন, ‘আপনি হাজার হাজার হাততালি নয়, থাপ্পড় খাওয়া উপযুক্ত। ছিঃ!’ একজন কমেন্টে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ছবি দিয়ে লেখেন, ‘ম্যাডাম, দয়া করে টুইট করার আগে এটি ব্যবহার করুন।’ অনেকে কমেন্ট করেন, ‘আপনার এখন সেল্ফ কোয়ারেন্টিন প্রয়োজন।’ দেবাশীষ নামে একজন মন্তব্য করেন, ‘ম্যাডাম, আমি আপনাকে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু এই বিষয়ে আলোচনা করার এটা উপযুক্ত সময় নয়।’ আরেকজন লেখেন, ‘সমালোচনা করা খুবই সহজ, কিন্তু সংগ্রাম করা কঠিন। ইতিবাচকভাবে ভাবুন। সমাধান শেয়ার করুন।’

Please follow and like us:
3