রবি. মে ১৯, ২০১৯

তাইওয়ানে হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে চীন

তাইওয়ানে হামলার

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : দক্ষিণ চীন সাগরের বিতর্কিত জলসীমা নিয়ে চীন ও তাইওয়ানের মধ্যে ফের উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। উত্তেজনার জেরে তাইওয়ানে হামলার জন্য সাগরে মোতায়েন সামরিক ব্রিগ্রেড দুটি থেকে বাড়িয়ে ছয়টিতে উন্নীত করেছে বলে জানাচ্ছে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন।
তাইওয়ান দীর্ঘদিন ধরে দক্ষিণ চীন সাগর দখল নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলছে। সাগরের কিছু অংশকে নিজেদের বলে দাবি করছে দুই পক্ষই। তাইওয়ানের অভিযোগ, প্রভাব বিস্তারের জন্য বেইজিং সাগরের কিছু দ্বীপে অনুপ্রবেশ করেছে। চীনের সামরিক ক্ষমতা সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক গোয়েন্দা সংস্থা (ডিআইএ) দেশটির কংগ্রেসকে দেয়া এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, চীন তাইওয়ানের স্বাধীনতা বাতিল করে তাদেরকে মূল ভূখন্ডের বাহিনীতে যোগ দিতে বাধ্য করবে। প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ‘চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি (পিএলএ) তাইওয়ান প্রণালীতে সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। তাছাড়া যদি প্রয়োজন পড়ে তাহলে তাইওয়ানের স্বাধীন সত্তা বাতিল করে চীনের মূল ভূখন্ডের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। প্রসঙ্গত, তাইওয়ান চীন প্রজাতন্ত্রের আওতাধীন একি পরাধীন দেশ। যুক্তরাষ্ট্রের ওই সামরিক গোয়েন্দা প্রতিবেদনে আরও বলা হচ্ছে, ‘চীনা সেনাবাহিনী (পিএলএ) তাইওয়ানকে সব রকমের চাপ প্রয়োগ করে চীনের মূল ভূখন্ডের সঙ্গে যুক্ত করার জন্য সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।’
পিপলস লিবারেশন আর্মি তাইওয়ানে খুব অল্প সময়ের মধ্যে জল-স্থল উভয় দিক থেকে বড় ধরনের হামলা চালাতে সক্ষম। সাগরে চীন যে রুটিন সামরিক মহড়া চালাচ্ছে তা অব্যাহত রাখলেও ছোট্ট তাইওয়ানকে পরাস্ত করা মাত্র কিছু সময়ের ব্যাপার। এমনটাই বলছে মার্কিন গোয়েন্দা প্রতিবেদন। প্রতিবেদনে হামলার আশঙ্কা করে বলা হচ্ছে, চীন সম্প্রতি সাগরে যে দুটি সামরিক কমান্ড যুক্ত করেছে সেগুলো হলো, ইলেকট্রনিক, মহাকাশ, সাইবার, যুদ্ধ প্রস্তুতির জন্য স্ট্রাটেজিক সাপোর্ট ফোর্স (এসএসএফ)। অপরটি হলো জয়েন্ট লজিস্টিক সাপোর্ট ফোর্স (জেএলএসএফ)। যা লজিস্টিক সেবাসমুহ দেওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকবে।

Please follow and like us:
0