শনি. জুলা ২০, ২০১৯

চাঁদের উল্টো পিঠের নতুন ছবি

চাঁদের উল্টো পিঠের নতুন ছবি

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : চাঁদের একটি অংশই পৃথিবী থেকে সব সময় দেখা যায়। আরেকটি অংশ অন্ধকারে ঢাকা থাকে। চাঁদের অন্ধকার অংশ দেখতে কেমন, তা নিয়ে গবেষণা করতে সেই অংশে প্রথমবারের মতো নভোযান পাঠিয়েছিল চীন। চাঁদের অন্ধকার অংশের নতুন কিছু ছবি সম্প্রতি পাঠিয়েছে চীনের ওই নভোযান। এ নিয়ে দারুণ কৌতূহল দেখা যাচ্ছে বিজ্ঞানীদের মাঝে।
চলতি বছরের জানুয়ারিতে চাঁদের অন্ধকার অংশে অবতরণ করে চীনের দুটি নভোযান- চ্যাং ই ফোর এবং ইউতু টু। চাঁদের এই অদেখা অংশের নতুন কিছু ছবি কয়েকদিন আগে পাঠিয়েছে নভোযান ইউতু টু।
চাঁদের উল্টো পিঠে পাঠানো নভোযান দুটির প্রধান লক্ষ্য হলো, পৃথিবী পৃষ্ঠ আর চাঁদের অন্ধকার পৃষ্ঠের মাঝে রাসায়নিক পার্থক্য খুঁজে দেখা। এই প্রজেক্টের সঙ্গে জড়িত বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, চাঁদের উল্টো দিকের খনিজ পদার্থ পর্যবেক্ষণ করে চাঁদের অভ্যন্তরীণ অংশে কোন কোন খনিজ পদার্থ আছে, তা জানা যাবে।
বিজ্ঞানীরা বলছেন, চ্যাং ই ফোর নভোযান মিশন তাদের প্রত্যাশাকেও ছাড়িয়ে গেছে। বিজ্ঞানীরা ওই নভোযানটিকে এমনভাবে ডিজাইন করেছিলেন, যা চাঁদে তিন দিন টিকে থাকতে পারে। দিনের বেলায় চাঁদের অন্ধকার অংশে তাপমাত্রা ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়ে যায়, তাই সেসময় একটু বিশ্রাম নিয়ে পরে আবারো অভিযানে এগিয়ে যায় নভোযান দুটি। চাঁদের অন্ধকার অংশের বৈরী পরিবেশে গত এক মাসে ইউতু টু নভোযানটি মাত্র ১৮০ মিটার পথ এগিয়ে যেতে সক্ষম হয়েছে। এরই মাঝে চাঁদের উল্টো পিঠের যেসব তথ্য পেয়েছে নভোযান দুটি, সামনে আরো যেসব তথ্য জানতে পারবে, তা নিয়ে কয়েকদিনের মধ্যে একটি প্রতিবেদন তৈরি করবেন বিজ্ঞানীরা। চাঁদের উল্টো পিঠে এই অভিযানের মাধ্যমে সৌরজগত কিভাবে তৈরি হলো, বিজ্ঞানীরা তাও জানার চেষ্টা করবেন। তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল

Please follow and like us:
2