শনি. সেপ্টে ২১, ২০১৯

গাজীপুর বারে বোমা হামলার মামলায় ৬ জঙ্গির মৃত্যুদণ্ড বহাল

Last Updated on

গাজীপুর আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে ১১ বছর আগে বোমা হামলা চালিয়ে আটজনকে হত্যার ঘটনায় দশ আসামির মধ্যে জেএমবির ছয় জঙ্গির মৃত্যুদ- বহাল রেখেছে হাই কোটর্। এছাড়া দুই আসামির সাজা কমিয়ে দেওয়া হয়েছে যাবজ্জীবন কারাদ-। দু’জনকে দেওয়া হয়েছে খালাস। আসামিদের ডেথ রেফারেন্স (মৃত্যুদ- অনুমোদন), আপিল ও জেল আপিলের শুনানি করে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের হাই কোটর্ বেঞ্চ গতকাল বৃহস্পতিবার এই রায় দেয়। ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ২০১৩ সালে ওই দশ আসামির সবাইকে মৃত্যুদ- দিয়েছিল। মৃত্যুদ-প্রাপ্ত ছয় জন: এনায়েত উল্লাহ ওরফে ওয়ালিদ ওরফে জুয়েল, আরিফুর রহমান ওরফে আকাশ ওরফে হাসিব, সাইদুর মুন্সী ওরফে শহীদুল মুন্সী ওরফে ইমন ওরফে পলাশ, আবদুল্লাহ আল সোহাইন ওরফে যায়িদ ওরফে আকাশ, নিজাম উদ্দিন রেজা ওরফে রনি ওরফে কচি ও তৈয়বুর রহমান ওরফে হাসান। যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত দুই জন: মসিদুল ইসলাম মাসুদ ওরফে ভুট্টো, আদনান সামী ওরফে আম্মার
ওরফে জাহাঙ্গীর। খালাস পাওয়া দুই জন: মো. আশরাফুল ইসলাম ওরফে আরসাদ ওরফে আব্বাস খান, মো. সফিউলাøহ ওরফে তারেক ওরফে আবুল কালাম। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শেখ এ কে এম মনিরুজ্জামান কবীর রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্িরতক্রিয়ায় বলেন, দুই জনের সাজা কমানো ও দুই জনকে খালাসের রায়ের বিরুদ্ধে আমরা আপিলে যাব। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৫ সালের ২৯ নভে¤র^ গাজীপুর অ্যাডভোকেট বার সমিতির দুই ন¤র^ হলে শক্তিশালী দুটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। আইনজীবীদের দৈনন্দিন কাযর্ক্রম ও আদালতে যাওয়ার প¯্র‘িতর মধ্যে ওই হামলায় আত্মঘাতী জেএমবি সদস্য আজাদ ওরফে জিয়া ওরফে নাজির ওরফে নাহিদ ঘটনা¯’েলই মারা যান। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অব¯া’য় মারা যান গাজীপুর বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন; আইনজীবী নুরুল হুদা, আনোয়ারুল আজম ও গোলাম ফারুক এবং চার বিচারপ্রার্থী। এ ঘটনায় জেএমবি নেতা শায়খ আব্দুর রহমান ও আতাউর রহমান সানী, আত্মঘাতী হামলাকারী ও সহযোগীদের বিরুদ্ধে জয়দেবপুর থানায় মামলা করেন পুলিশের উপপরিদশর্ক মো. আলমগীর হোসেন।

Please follow and like us:
2