গত ১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন ডিএসইতে

গত ১ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন ডিএসইতে

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবারও (১২ ফেব্রুয়ারি) সূচকের উত্থান হয়েছে পুঁজিবাজারে। এদিন দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বেড়েছে। তবে এদিন ডিএসইর লেনদেন ছাড়িয়েছে ৭শ কোটি টাকা।
ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।
এদিকে, ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগের বিষয়ে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনের পর উত্থানে ফিরেছে দেশের পুঁজিবাজার বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তাদের মতে, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ঘোষণার পর লেনদেনে ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে। প্রতিদিনই পাঁচশ কোটি টাকার উপরে গড় লেনদেন হচ্ছে।
অপরদিকে, ডিএসইতে আজ টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৭৩০ কোটি ৫৭ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট। যা ১১ মাস ২৫ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ। এর আগের ২০১৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারি আজকের চেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছিল। ওইদিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৮৯১ কোটি টাকার।
বৃহস্পতিবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৫৬৫ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৫ পয়েন্ট ও ডিএসই-৩০ সূচক ২১ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১০৪৬ ও ১৫৩৭ পয়েন্টে।
ডিএসইতে বৃহস্পতিবার ৩৫৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ২৫৯টির শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ৬৫টির এবং ৩২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।
টাকার অংকে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হওয়া শীর্ষ ১০ কোম্পানি হলো- খুলনা পাওয়ার, লাফার্জহোলসিম, ইন্দো-বাংলা ফার্মা, শেফার্ড, এসএস স্টিল, ওরিয়ন ইনফিউশন, ডরিন পাওয়ার, এডিএন টেলিকম, সামিট পাওয়ার এবং বেক্সিমকো।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ২৭৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৯১২ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৬০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৯৪টির, কমেছে ৪২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৪টির দর। সিএসইতে ৭৩ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনের চেয়ে ৫২ কোটি টাকা বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৯ কোটি টাকার।

Please follow and like us: