শুক্র. সেপ্টে ২০, ২০১৯

কল্যাণপুরে নহিত ৭ জঙ্গি শনাক্ত

Last Updated on

ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন বিএনপির নেতারা। বৈঠকে সাম্প্রতিক বিভিন্ন সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাসহ দেশে বিরাজমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে কূটনীতিকদের অবহিত করা হয়েছে বলে জানা গেছে। গতকাল বুধবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়। এ বৈঠক সম্পর্কে বিএনপি গণমাধ্যমকে কিছু জানায়নি। বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, স্পেন, জার্মানি, জাপান, ইন্দোনেশিয়া,
সিঙ্গাপুর, সৌদি আরব, পাকিস্তান, নরওয়ে এবং জাতিসংঘ মিশনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিএনপির পক্ষে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, কেন্দ্রীয় নেতা জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, খন্দকার মাহবুব হোসেন, সাবিহ উদ্দিন আহমেদ, আসাদুজ্জামান রিপন প্রমুখ। বৈঠকে উপস্থিত থাকা একাধিক সূত্রে জানা গেছে, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর কূটনীতিকদের একটি লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন। তাতে চলমান সন্ত্রাস ও জঙ্গি হামলা, এই পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপির চেয়ারপারসনের পক্ষ থেকে নেওয়া
জাতীয় ঐক্যের উদ্যোগ এবং তা নিয়ে সরকারের নেতিবাচক আচরণ, জঙ্গিবাদের জন্য ঢালাওভাবে বিরোধী দলকে দায়ী করার বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির একজন নেতা বলেন, ‘দলের পক্ষ থেকে কূটনীতিকদের অবহিত করা হয়েছে যে সরকার বিভিন্ন ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের সাজা দিয়ে একটি মধ্যবর্তী নির্বাচন আয়োজনের অপচেষ্টা করছে। আমরা বলেছি, এতে বিরাজমান সমস্যা দূর হবে না বরং পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তুলবে।’ বৈঠকে উপস্থিত অপর একটি সূত্র প্রকাশিত লাশের ছবির প্রথমজন হলেন আব্দুল্লাহ। তিনি দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থানার ব্ললভপুর গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে। তালিকার দ্বিতীয় ছবিটি আবু হাকিম নাইমের। তিনি পটুয়াখালীর কুয়াকাটার নুরুল ইসলামের ছেলে। তৃতীয় ছবিটি তাজ-উল-হক রাশিকের। তিনি ঢাকার ধানম-ির ১১/এ নম্বর সড়কের রবিউল হকের ছেলে। চতুর্থ ছবিটি আকিফুজ্জামান খানের। তিনি গুলশানের ১০ নম্বর সড়কের ২৫ নম্বর বাড়ির সাইফুজ্জামান খানের ছেলে। ষষ্ঠ ছবিটি সাজাদ রউফ অর্কের। তার বাবা তৌহিদ রউফের ঠিকানা দেওয়া হয়েছে ৬২ পার্ক রোড, বাসা নং-৩০৪, রোড নং-১০, ব্লক-সি, ফ্ল্যাট নং-০৯, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, ঢাকা। সপ্তম ছবিটি মতিয়া রহমানের বলে পুলিশ জানিয়েছে। তিনি সাতক্ষীরার তালা উপজেলার ওমরপুর গ্রামের নাসিরউদ্দিন সরদারের ছেলে। অষ্টম ছবিটি জোবায়ের হোসেনের। তিনি নোয়াখালীর সুধারাম উপজেলার পশ্চিম মাইজদীর আবদুল্লাহ মেম্বারের বাড়ির আব্দুল কাইউমের ছেলে। নয়টি ছবির পঞ্চম ও নবম জন এখনও অশনাক্ত অবস্থায় রয়েছেন।

Please follow and like us:
2