মঙ্গল. মার্চ ৩১, ২০২০

করোনায় মারা যাওয়া মানুষের দেহ কী বিপজ্জনক?

করোনায় মারা যাওয়া মানুষের দেহ কী বিপজ্জনক?

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : বিশ্বে প্রতিদিনই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। বিপুল সংখ্যক লোকের এই মৃত্যুর পরিপ্রেক্ষিতে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, ভাইরাসে আক্রান্ত জীবিত মানুষের মতো মৃতদেহগুলোও কী বিপজ্জনক?
সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এ ব্যাপারে একটি গাইডলাইন প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির দেহ থেকে ভাইরাস সংক্রমণের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। মানুষের মৃত্যুর পর অধিকাংশ ভাইরাসই আর বেঁচে থাকে না। তবে কলেরা ও রক্তপ্রদাহজনিত জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর ক্ষেত্রে মৃতদেহ বাস্তবিক অর্থে ঝুঁকি সৃষ্টি করে। যারা নিয়মিত মৃতদেহ নিয়ে কাজ করেন তাদের যক্ষা, হেপাটাইটিস বি ও সি, পাকস্থলিতে প্রদাহ ও এইচআইভিতে আক্রান্তের ঝুঁকি থাকে। করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া মানুষের দেহ সৎকারের ক্ষেত্রে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কিছু নির্দেশনা দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে- কবরস্থান হতে হবে পানের জন্য ব্যবহৃত পানির উৎস থেকে অন্তত ৩০ মিটার দূরে। কবরের ভূমি বা মেঝে পানির স্তর থেকে অন্তত দেড় মিটার উঁচুতে হবে। কবরস্থানে ব্যবহৃত পানি যেন কোনোভাবেই জনঅধ্যুষিত এলাকায় প্রবেশ না করে। রক্ত ও মৃতদেহ থেকে বের হওয়া তরল পদার্থের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক সতর্কনীতি মেনে চলতে হবে। মৃতদেহ নাড়াচাড়া বা দাফনের সময় গ¬াভস ব্যবহার করতে হবে এবং বারবার একই গ¬াভস ব্যবহার করা যাবে না। মৃতদেহ দাফনের সময় ব্যাগ ব্যবহার করতে হবে। মৃতদেহ দাফনের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিকে হেপাটাইটিস-বি এর টিকা দিতে হবে। দাফনের পর গাড়ি ও যন্ত্রপাতি জীবাণুমক্ত করতে হবে।

Please follow and like us:
3