করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন বীর প্রতীক আশরাফ আলী

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন বীর প্রতীক আশরাফ আলী

Last Updated on

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি : ময়মনসিংহে করোনার নিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান বীর প্রতীক (৬৩) মারা গেছেন। গতকাল মঙ্গলবার ১২টার দিকে ময়মনসিংহ ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্য হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ময়মনসিংহ মেডিক্যার কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. জাকিউল ইসলাম।
তিনি বলেন, গত তিনদিন যাবত তিনি জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। পরে অবস্থার অবনতি হলে আজ মঙ্গলবার (৩০) জুন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আনার পথে তার মৃত্যু হয়। করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হওয়ায় নমুনা সংগ্রহ করে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে তার ছেলে আজম খান বলেন, উনার করোনার কোন উপসর্গ আমরা বুঝতে পারিনি। তবে আট দিন ধরে এই মুক্তিযোদ্ধার জ্বর ছিল। সোমবার রাত থেকে শ্বাসকষ্ট শুরু হয়, মঙ্গলবার তা খুব বেড়ে যায়। আর দুপুরের আগেই আমার বাবার মৃত্যু হয়। বীর প্রতীক আশরাফ আলীর গ্রামের বাড়ি ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার সোহাগী ইউনিয়নের চট্রী গ্রামে। তিনি স্বপরিবার নগরীর আকুয়া মধ্যপাড়া এলাকায় বসবাস করতেন। বীর প্রতীক আশরাফ আলী খান ১৯৬৯ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন এবং ১৯৮৮ সালে চট্রগ্রাম সেনানিবাস থেকে ল্যান্স নায়েক হিসেবে অবসর গ্রহন করেন। ১৯৭১ সালে যুদ্ধে অংশগ্রহন করে দেশমাতৃকার জন্য সাহসীকতাপূর্ণ অবদানের জন্য তাকে বীর প্রতীক উপাধী দেওয়া হয়। তিনি যুদ্ধের সময় সম্মুখযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ হন এবং শরীরে গুলি নিয়ে অনেক বছর কষ্ট করেছেন। আশরাফ আলী খান বীর প্রতীক স্ত্রী, তিন ছেলে এবং আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

Please follow and like us:
3
20
fb-share-icon20
Live Updates COVID-19 CASES