শনি. মার্চ ২৩, ২০১৯

এনামুলের সেঞ্চুরিতে রূপগঞ্জকে উড়িয়ে দিল প্রাইম ব্যাংক

এনামুলের সেঞ্চুরিতে রূপগঞ্জকে উড়িয়ে দিল প্রাইম ব্যাংক

Last Updated on

ক্রীড়া ডেস্ক : দারুণ বোলিংয়ে সুর বেঁধে দিলেন মোহর শেখ। সঙ্গত করলেন অন্য বোলাররা। দেড়শ ছাড়িয়েই গুটিয়ে গেল লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। ছোট লক্ষ্য তাড়ায় দলকে পথ দেখালেন এনামুল হক। অধিনায়কের সেঞ্চুরিতে সহজেই জিতল প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের তৃতীয় রাউন্ডে ৯ উইকেটে জিতেছে এনামুলের দল। ১৬৪ রানের লক্ষ্য ১১১ বল বাকি থাকতে পেরিয়ে যায় তারা। টানা দুই জয়ের পর টুর্নামেন্টে প্রথম হারের স্বাদ পেল রূপগঞ্জ। চলতি আসরে এটা প্রাইম ব্যাংকের দ্বিতীয় জয়।
বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে বৃহস্পতিবার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি রূপগঞ্জের। শূন্য রানে আজমির আহমেদকে বিদায় করেন মোহর। পরে এই পেসার ১ রানে ফিরিয়ে দেন শাহরিয়ার নাফীসকে। আগের ম্যাচে ঝড় তুলে সেঞ্চুরি করা মোহাম্মদ নাঈম তেমন শুরু করেছিলেন এবারও। তবে পঞ্চাশ ছোয়ার পরপরই বাঁহাতি এই ওপেনারকে ফিরিয়ে দেন আরিফুল হক। নাঈমের ৪৩ বলে খেলা ৫২ রানের ইনিংস গড়া আট চার ও এক ছক্কায়। সেই ম্যাচের আরেক সেঞ্চুরিয়ান নাঈম ইসলাম ফিরে যান থিতু হয়ে। দুই অঙ্ক ছুঁয়ে তাকে অনুসরণ করেন আসিফ আহমেদ ও ভারতীয় অলরাউন্ডার রিশি ধাওয়ান। ব্যাটসম্যানদের আসা-যাওয়ার মধ্যে কিছুটা প্রতিরোধ গড়েন জাকের আলী। তরুণ এই কিপার-ব্যাটসম্যানের ৬৪ বলে খেলা ৪৭ রানের দায়িত্বশীল ইনিংসে দেড়শ ছাড়ায় রূপগঞ্জের সংগ্রহ। প্রাইম ব্যাংকের অলক কাপালী, মোহর, আব্দুর রাজ্জাক, আরিফুল ও আল আমিন হোসেন নেন দুটি করে উইকেট। ছোট রান তাড়ায় রুবেল মিয়ার সঙ্গে ১২৫ রানের উদ্বোধনী জুটিতে প্রাইম ব্যাংককে ভালো শুরু এনে দেন এনামুল। ৬১ বলে চারটি চারে ৪৪ রান করা রুবেলকে ফিরিয়ে দলকে ‘ব্রেক থ্রু’ এনে দেন নাবিল সামাদ। ভারতীয় ব্যাটসম্যান সুদিপ চ্যাটার্জীকে নিয়ে বাকিটা সহজেই সারেন এনামুল। বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে এই কিপার-ব্যাটসম্যান ১১১ বলে তুলে নেন সেঞ্চুরি। তার ১০০ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংস গড়া ১২ চার ও দুই ছক্কায়। দারুণ এই ইনিংসের জন্য তিনি জেতেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ: ৪৬.১ ওভারে ১৬৩ (আজমির ০, মোহাম্মদ নাঈম ৫২, শাহরিয়ার ১, নাঈম ১৫, আসিফ আহমেদ ১২, ধাওয়ান ১৩, জাকের ৪৭, মুক্তার ১, আসিফ হাসান ১১, শহীদ ৩, নাবিল ০*; মোহর ২/১৪, আল আমিন ২/৪৮, আল আমিন জুনিয়র ০/২৬, আরিফুল ২/৩৮, রাজ্জাক ২/২৫, কাপালী ২/১২)
প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব: ৩১.৩ ওভারে ১৬৬/১ (এনামুল ১০০*, রুবেল ৪৪, সুদিপ ১৫*; শহীদ ০/২১, নাবিল ১/৩৬, আসিফ হাসান ০/৪৪, ধাওয়ান ০/২৮, নাঈম ০/২০, আজমির ০/৯, আসিফ আহমেদ ০/৬)
ফল: প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব ৯ উইকেটে জয়ী

Please follow and like us:
0