শনি. জুলা ২০, ২০১৯

ইংল্যাককে ফেরত চায় থাই জান্তা সরকার

ইংল্যাককে ফেরত চায় থাই জান্তা সরকার

Last Updated on

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ব্রিটেন থেকে থাইল্যান্ডের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে বের করে দেয়ার দাবি জানিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন জান্তা সরকার। ব্রিটিশ সরকারের কাছে পাঠানো থাইল্যান্ডের অনুরোধের গোপন নথিতে এই দাবি জানানো হয়েছে।থাইল্যান্ডের নির্বাচিত সরকারের প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা ২০১৪ সালে এক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন। পরে সরকারের চাল ক্রয় সংক্রান্ত প্রকল্পে দুর্নীতিতে অভিযুক্ত হওয়ার পর ২০১৭ সালের আগস্টে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান তিনি।একমাস পর তার অনুপস্থিতিতে দেশটির আদালত দুর্নীতি থামাতে ব্যর্থ হওয়ায় সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ঘোষণা করেন। তবে ইংল্যাকের পরিবারকে রাজনীতির বাইরে রাখতে থাই জান্তা সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশে সাজানো মামলা করেছে বলে তার সমর্থকরা এর নিন্দা জানান।প্রথম দিকে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে সাবেক এই থাই প্রধানমন্ত্রী দুবাইয়ে পালিয়ে গেছেন; কিন্তু পরবর্তীতে ইংল্যান্ডে পাড়ি জমানোর খবর আসে। বিট্রেনে তিনি রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়েছেন বলেও গুঞ্জন রয়েছে। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন ছবিতে ইংল্যাককে জাপান, সিঙ্গাপুর ও চীনেও দেখা যায়।ইংল্যাককে প্রত্যাবাসনের অনুরোধ জানিয়ে লন্ডনে নিযুক্ত থাই দূতাবাস ব্রিটিশ সরকারের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, থাইল্যান্ডের নাগিরক ইংলাক সিনাওয়াত্রা যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। থাই সরকার তাকে ইংল্যান্ড থেকে নিজ দেশে প্রত্যাবাসনের অনুরোধ করছে।থাইল্যান্ডের সঙ্গে ব্রিটিশ সরকারের প্রত্যাবাসন চুক্তি থাকলেও এ ব্যাপারে দেশটির দায়িত্বশীল কোনো পক্ষই মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

Please follow and like us:
2