শনি. আগ ১৭, ২০১৯

আমরা ক্ষুদ্র: নাসাকে মাস্ক

আমরা ক্ষুদ্র: নাসাকে মাস্ক

Last Updated on

প্রত্যাশা ডেস্ক : গত বৃহস্পতির বিশাল আকার নিয়ে নাসার করা টুইট বার্তার জবাবে স্পেসএক্স প্রধান ইলন মাস্ক বলেছেন, ‘আমরা ক্ষুদ্র’। আর্টেমিস মিশনে স্পেসএক্স-এর সঙ্গেও অংশীদারিত্ব করেছে নাসা।
গত শনিবার এক টুইট বার্তায় মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়, “আপনি কী জানেন বৃহস্পতির আইকনিক গ্রেট রেড স্পটে দুইটি পৃথিবী আটানো যেতে পারে? এই ছবিতে আমরা অনেকগুলো রঙিন ফিচারের মধ্যে একটি শক্তিশালী ঝড় দেখতে পাচ্ছি। ছবিটি তোলা হয়েছে @নাসাজুনো মহাকাশযান দিয়ে এবং প্রসেস করেছেন #সিটিজেনসায়েন্টিস্ট কেভিন এম. গিল।”
নাসা’র এই টুইটের জবাবেই মাস্ক বলেন , “আমরা ক্ষুদ্র।”
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএএনএস-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২৪ সালে চাঁদের বুকে পুনরায় মানুষ নামানোর লক্ষ্যে আর্টেমিস মিশনের জন্য মহাকাশ প্রযুক্তি বানাতে ১৩টি প্রতিষ্ঠানকে বাছাই করেছে নাসা। এর মধ্যে রয়েছে জেফ বেজোসের ব¬ু অরিজিন এবং ইলন মাস্কের স্পেসএক্স। এর আগে নাসা’র এক বিবৃতিতে বলা হয়, বিনামূল্যে বিশেষজ্ঞ, স্থান, হার্ডওয়্যার এবং সফটওয়্যার সমর্থন দিতে এক ডজনের কম কর্মীর মতো ছোট প্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে বড় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অংশীদারিত্ব করা হতে পারে। নাসার স্পেস টেকনোলজি মিশন ডিরেক্টরেট-এর সহযোগী প্রশাসক জিম রয়টার বলেন, “নাসার ভবিষ্যত মিশনের জন্য দরকার এমন প্রযুক্তি খাতগুলো আমরা চিহ্নিত করেছি এবং এই পাবলিক-প্রাইভেট অংশীদারিত্ব এই উন্নয়নের গতি বাড়াবে যাতে আমরা দ্রুত এগুলো প্রয়োগ করতে পারি।”
চাঁদের বুকে বড় রকেট উল¬ম্বভাবে নামাতে ইতোমধ্যেই নাসার কেনেডি স্পেস সেন্টারে প্রযুক্তি উন্নয়নের কাজ শুরু করেছে স্পেসএক্স।

Please follow and like us:
2