সোম. জুন ১৭, ২০১৯

আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিল আয়ারল্যান্ড

আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিল

Last Updated on

ক্রীড়া ডেস্ক : রান করা কঠিন এমন উইকেটে পল স্টার্লিং ও উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের ফিফটিতে লড়াইয়ের পুঁজি পেল আয়ারল্যান্ড। ত্রিদেশীয় সিরিজে অনুজ্জ্বল থাকা বোলিং ইউনিট জ্বলে উঠল। প্রথম ওয়ানডেতে আফগানিস্তানকে উড়িয়ে দিল আইরিশরা। বেলফাস্টে বোলারদের দাপটের ম্যাচে ৭২ রানে জিতে দুই ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে আয়ারল্যান্ড। ২১০ রান তাড়ায় ৩৫ ওভার ৪ বলে ১৩৮ রানে গুটিয়ে গেছে আফগানিস্তান। বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নিয়ে হয়ে যাওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজে আয়ারল্যান্ডের জয়শূন্য থাকায় সবচেয়ে বড় দায় ছিল বোলারদের। আফগানিস্তান সিরিজের আগে বোলারদের এগিয়ে আসার তাগিদ দিয়েছিলেন অধিনায়ক পোর্টারফিল্ড। তাতে সাড়া দিয়েই যেন আফগানদের গুঁড়িয়ে দিলেন মার্ক অ্যাডায়ার, বয়েড র‌্যানকিনরা। স্টরমন্টের সিভিল সার্ভিস ক্রিকেট ক্লাব মাঠে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি আয়ারল্যান্ডের। জেমস ম্যাককলাম ও অ্যান্ডি বালবার্নিকে দ্রুত ফিরিয়ে দেন দৌলত জাদরান। এরপরই নিজেদের সেরা জুটি পেয়ে যায় আইরিশরা। তৃতীয় উইকেটে অধিনায়ক পোর্টারফিল্ডের সঙ্গে ৯৯ রানের জুটিতে দলকে টানেন স্টার্লিং। ৬ চারে ৫৩ রান করা পোর্টারফিল্ডকে বিদায় করে বিপজ্জনক হয়ে উঠা জুটি ভাঙেন লেগ স্পিনার রশিদ খান।
৯৪ বলে ছয় চার ও দুই ছক্কায় ৭১ রান করা স্টার্লিংকে খানিক পর থামান আফগান অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব। এরপর মিডল অর্ডারে একাই লড়াই করেন কেভিন ও’ব্রায়েন। ৪৪ বলে ৩২ রানের ইনিংসে দলকে এনে দেন লড়াইয়ের পুঁজি। ১৮ রানে শেষ ৫ উইকেট হারানো স্বাগতিকরা খেলতে পারেনি পুরো ৫০ ওভার। দুই আফগান পেসার আফতাব আলম ও দৌলত নেন তিনটি করে উইকেট। দুই আক্রমণাত্মক ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ ও হজরতউল্লাহ জাজাইকে ডানা মেলতে দেননি আইরিশ বোলাররা। মন্থর ব্যাটিংয়ে ১৯ ওভারে ৪০ রান তুলতে প্রথম চার ব্যাটসম্যানকে হারায় সফরকারীরা। রানের গতিতে দম দেন মোহাম্মদ নবি। দুটি করে ছক্কা-চারে ২৫ বলে ২৭ রান করা অলরাউন্ডারকে ফিরিয়ে দেন ও’ব্রায়েন। এক প্রান্ত আগলে রাখা আসগর আফগানের প্রতিরোধ ভাঙেন র‌্যানকিন। পাল্টা আক্রমণে দ্রুত রান তোলার চেষ্টায় ছিলেন নাইব, রশিদ। তাদের কারোর ইনিংসই বড় হয়নি। আফগানিস্তানও পারেনি বড় হার এড়াতে। অ্যান্ডি ম্যাকব্রায়ান আফগান ব্যাটসম্যানদের জন্য ছিলেন যেন দুর্বোধ্য। ১০ ওভারে মাত্র ১৭ রান দেন এই অফ স্পিনার। ১৯ রানে চার উইকেট নিয়ে আয়ারল্যান্ডের সফলতম বোলার অ্যাডায়ার। র‌্যানকিন ৩ উইকেট নেন ৪০ রানে। আগামী মঙ্গলবার একই ভেন্যুতে হবে দ্বিতীয় ও শেষ ওয়ানডে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
আয়ারল্যান্ড: ৪৮.৫ ওভারে ২১০ (স্টার্লিং ৭১, ম্যাককলাম ৪, বালবার্নি ৪, পোর্টারফিল্ড ৫৩, ও’ব্রায়েন ৩২, উইলসন ১০, ড্করেল ১৪, অ্যাডায়ার ৭, ম্যাকব্রায়ান ৩, মারটাঘ ৩*, র‌্যানকিন ১; দৌলত ৩/৩৫, আফতাব ৩/২৮, মুজিব ০/৩৫, নাইব ১/৪৫, রশিদ ২/৪১, নবি ০/২১)
আফগানিস্তান: ৩৫.৪ ওভারে ১৩৮ (শাহজাদ ২, জাজাই ১৪, রহমত ৪, আফগান ২৯, শাহিদি ১২, নবি ২৭, নাইব ২০, রশিদ ১৬, দৌলত ০, আফতাব ৫*, মুজিব ০; মারটাঘ ২/১২, ম্যাকব্রায়ান ০/১৭, অ্যডায়ার ৪/১৯, ডকরেল ০/২৬, র‌্যানকিন ৩/৪০, ও’ব্রায়েন ১/২১)
ফল: আয়ারল্যান্ড ৭২ রানে জয়ী

Please follow and like us:
0