শুক্র. নভে ২২, ২০১৯

আতালান্তার মাঠে পয়েন্ট হারিয়ে অপেক্ষায় সিটি

আতালান্তার মাঠে পয়েন্ট হারিয়ে অপেক্ষায় সিটি

Last Updated on

ক্রীড়া ডেস্ক : জিতলেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্ব নিশ্চিত হয়ে যেত ম্যানচেস্টার সিটির। ম্যাচের শুরুতে এগিয়ে গিয়ে সম্ভাবনাও জাগিয়েছিল তারা; কিন্তু পারল না জাল অক্ষত রাখতে। আতালান্তার বিপক্ষে পয়েন্ট হারিয়ে অপেক্ষায় রইলো পেপ গুয়ার্দিওলার দল। ইতালিয়ান ক্লাবটির মাঠ থেকে বুধবার রাতে ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে ১-১ ড্র করে ফিরেছে সিটি। ম্যাচের শুরুতে সিটির রক্ষণে চাপ বাড়ানো আতালান্তা চতুর্থ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো। তবে ভালো পজিশনে থেকেও সাইড নেটে মেরে সুযোগ নষ্ট করেন ডাচ ডিফেন্ডার হানস হাটেবুর। তিন মিনিট পর প্রথম আক্রমণেই গোল আদায় করে নেয় সিটি। ডি-বক্সে জেসুসের ব্যাকপাস পেয়ে ডান পায়ের শটে বল ঠিকানায় পাঠান স্টার্লিং। বিরতির আগে আতালান্তার ডি-বক্সে তাদের মিডফিল্ডার ইয়োসিপের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তবে লক্ষ্যভ্রষ্ট শটে ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ নষ্ট করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড জেসুস। দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে সমতা টেনে সমর্থকদের উচ্ছ্বাসে ভাসান মারিও পাশালিচ। জোরালো হেডে গোলটি করেন এই ক্রোয়াট মিডফিল্ডার। ৮১তম মিনিটে প্রতিপক্ষের মিডফিল্ডার ইয়োসিপ ইলিসিচকে ডি-বক্সের বাইরে বেরিয়ে এসে ফাউল করলে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন সিটির বদলি গোলরক্ষক ক্লাওদিও ব্রাভো। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথম বদলি গোলরক্ষক হিসেবে লাল কার্ড দেখলেন তিনি।
বাকিটা সময় গোলপোস্ট সামলান ডিফেন্ডার কাইল ওয়াকার। তবে কোনো বিপদ হতে দেননি ইংলিশ এই রাইট ব্যাক। চার ম্যাচে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে ম্যানচেস্টার সিটি। দিনামো জাগরেব ও শাখতার দোনেৎস্কের মধ্যে গ্রুপের অপর ম্যাচটি ৩-৩ ড্র হয়েছে। দল দুটির অর্জন সমান ৫ পয়েন্ট করে। ১ পয়েন্ট নিয়ে সবার নিচে আতালান্তা।

Please follow and like us:
3