অনুশীলনে ফিরতে মুখিয়ে তামিম

মুখিয়ে তামিম

ক্রীড়া ডেস্ক : ২৪ ঘণ্টার সাড়ে ২৩ ঘন্টাই থাকতে হচ্ছে ঘরবন্দি হয়ে। কঠিন এই পরীক্ষার ছয় দিন কেটে গেছে। বাকি আর একদিন। নিউ জিল্যান্ডে সাত দিনের রুম কোয়ারেন্টিন শেষ করে জিম ও মাঠে অনুশীলন শুরুর জন্য মরিয়া হয়ে আছেন তামিম ইকবাল ও তার দল। তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউ জিল্যান্ডে পৌঁছায় বাংলাদেশের ৩৫ সদস্যের বহর। ক্রাইস্টচার্চে দল রয়েছে দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিনে। ১৪ দিনের প্রথম ৭ দিন ঘরবন্দি থাকতে হচ্ছে সবাইকে। প্রথম তিন দিনের পর প্রতিদিন আধাঘণ্টা বাইরে বেরুনোর সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। কোভিড-১৯ পরীক্ষায় নেগেটিভ হওয়া সাপেক্ষে অষ্টম দিন থেকে জিম ও সীমিত পরিসরে অনুশীলনের সুযোগ পাবেন তারা। সোমবার বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম বললেন, সেদিকেই তাকিয়ে আছেন তারা। ‘কালকে যদি আমাদের সবার কোভিড টেস্ট নেগেটিভ আসে তাহলে আমরা পরশু দিন থেকে জিম ব্যবহার করতে পারব। এখানে দুইটা জিম আছে নিচে, যেখানে আমরা ভিন্ন ভিন্ন গ্রুপে গিয়ে ব্যবহার করতে পারব, সাথে ৮ নম্বর দিন থেকে যদি সব ঠিকঠাক থাকে তখন আমাদের ছোট ছোট গ্রুপে প্র্যাকটিসের জন্য অ্যালাও করা হবে। যেখানে আমরা মাঠে গিয়ে প্র্যাকটিস করতে পারব। আমি এটার দিকেই তাকিয়ে আছি। অনেকদিন হয়ে গেল, এগুলো যখনই শুরু হয়ে যাবে তখনই আশা করি আমাদের ফোকাসটা পুরোপুরি ক্রিকেটে ফিরে আসবে।’
আগামী ২০ মার্চ ওয়ানডে দিয়ে শুরু হবে সিরিজ। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে এর আগে তাদের দেশে তিন সংস্করণ মিলিয়ে ২৬ ম্যাচ খেলে একটিতেও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। এবার যাওয়ার আগে তামিম বলে গেছেন, অধরাকে তারা ধরতে চান এই দফায়। নিজেদের পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারলে যেকোনো কিছুই সম্ভব বলে মনে করেন অভিজ্ঞ এই ওপেনার। ‘আমার এটা প্রথম বিদেশ সফর অধিনায়ক হিসেবে। আমি আশাবাদী। আমি নিশ্চিত প্রথম ওয়ানডে শুরু হবার আগে আমাদের যে প্র্যাকটিস সেশন আছে সেখানে আমরা দল হিসেবে তৈরি হতে পারব। সত্যি কথা আমি যা অনুভব করি, দলের সবার সাথে কথা বলে যা অনুভব করেছি সবাই ভালো করতে চায় বাংলাদেশ দলের জন্য। আমরা আশাবাদী ইনশাআল্লাহ, দেখা যাক।’ ‘যেটা আমি সবসময়ই বলি, বাংলাদেশ দলের ওই সক্ষমতা সবসময়ই আছে। যদি আমরা আমাদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করি, সবাই যদি পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলতে পারি, একসাথে ভালো পারফর্ম করি, আমরা যেকোনো দলকে হারাতে পারি। এটা আমি বিশ্বাস করি, আমি নিশ্চিত দলের সবাই এটা বিশ্বাস করে। আমরা সবাই আশাবাদী।’

Please follow and like us: